Home Bengal ‘এক রাতে পাঁচশো’, প্রকাশ্যে আসছে সন্দেশখালির মহিলাদের বিস্ফোরক মন্তব্য

‘এক রাতে পাঁচশো’, প্রকাশ্যে আসছে সন্দেশখালির মহিলাদের বিস্ফোরক মন্তব্য

by Mahanagar Desk
85 views

মহানগর ডেস্ক:  সন্দেশখালি এখন রাজ্যের হটস্পট। রাজ্য রাজনীতির একেবারে ৩৬০  ডিগ্রি কভারেজ! শেখ শাহজাহান দিয়ে যে অধ্যায়ের সূচনা হয়েছিল, তাতে নাম জুড়েছে আরও বড় ‘মাতব্বরদের’। শিবু হাজরা, অর্থাৎ সন্দেশখালি ২নং ব্লকের সভাপতির বিরুদ্ধে এসেছে একগুচ্ছ অভিযোগ।একশো দিনের কাজে ৮০ লক্ষ টাকার দুর্নীতির অভিযোগ যেমন রয়েছে, তেমনি শিবু হাজরা, উত্তম সর্দারদের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগও তুলেছেন গ্রামের মহিলারা। এবার সামনে আসতে শুরু করেছে এলাকার মহিলাদের উপর শারীরিক নির্যাতনের মত  ঘটনা।

এক মহিলা বলেছেন,   ” এমনও হয়েছে, গ্রামে বাঁধ নির্মাণের নামে আমাদের কাছ থেকেই টাকা তোলা হয়েছে। এই টাকা তো আমাদের দেওয়ার কথা নয়। আমাদের তো জীবনে ভয় আছে। ওর মতো নেতাদের হাতে মার খাওয়ার থেকে না খেয়ে পেটে গামছা বেঁধে টাকা দিয়ে দিই। না হলেই তো রাতবিরেতে লোক ঢুকে যাবে ঘরে! তুলে নিয়ে যাবে। আমাদের বাড়ির ব্যাটাছেলেগুলোকে মেরে মেরে শেষ করে দেবে।” আরেক বয়স্ক মহিলা বললেন, “হাজার টাকার কাজ করলে, পাঁচশো টাকা ওদের দিয়ে দিতে হচ্ছে। না দিলেই রাতে এসে তুলে নিয়ে যাচ্ছে। বাড়িতে এসে কোদালের বাঁট মেরে যাচ্ছে। বাইরের দাদারা এসে যেন আমাদের গ্রামের বাসিন্দা যেন না হয়। শিবু হাজরা, উত্তম সর্দাররা বাইরে বাসিন্দা। এখানকার নয়। আমাদের দিতে বাধ্য করছে।” উত্তম সর্দারের অনুগামীরা এরকমই এক আন্দোলনকারী মহিলার বাড়িতে ঢুকে মারধর করেছে বলে অভিযোগ। চোয়ালে তাঁর রক্ত জমাট বাঁধা। কোলের এক রত্তিও সেই অত্যাচারের হাত থেকে রেহাই পাননি বলে অভিযোগ।

তবে শেখ শাহজাহান নিয়ে এখন খুব একটা কথা বলছেন না সন্দেশখালির মহিলারা। কিন্তু যাদের নাম বারবার বলছেন, তাঁরা আদতে সন্দেশখালির বাসিন্দাই নয়। কিন্তু অভিযোগ, তারাই দীর্ঘদিন গ্রামে ঢুকে রাতবিরেতে অত্যাচার চালিয়েছে।লুঠ করেছে, শোষণ চালিয়েছে, রাতবিরেতে ঘর থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে নিগ্রহ করেছে। তারা সন্দেশখালির বাইরের মানুষ। ‘বাইরের দাদা’, শিবু হাজরা, উত্তম সর্দার। তাদের বিরুদ্ধে একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগে সোচ্চার গ্রামবাসীরা। শাহজাহান, উত্তম সর্দারের বিরুদ্ধে যা যা অভিযোগ সামনে আনছেন গ্রামের মহিলারা, তা শিউরে ওঠার মতো। উত্তম সর্দারকে সোমবারই জামিন দিয়েছিল বসিরহাট মহকুমা আদালত। কিন্তু পুলিশ সেই রাতেই আবার তাকে গ্রেফতার করে। আর এদিকে এখনও পুলিশের চোখে ফেরার শিবু হাজরা। তাই তাদের কোনই প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে কী বলছেন সেখানকার সাংসদ।  তাঁকে তো এখনও পর্যন্ত পাশেই পাননি গ্রামের নির্যাতিতারা। সাংসদ নুসরত জাহানের অবশ্য দাবি, “আমার কাজ আগুনে ঘি ঢালা নয়। আমি প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি। প্রশাসনকে সব রকম ভাবে সাহায্য করছি।”

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved