যোগীরাজ্যে পণের বলি অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ, শ্বাসরোধ করে খুনের পর দেহ ভাসানো হল গঙ্গায়

2
national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: যোগীরাজ্যে ফের পণের বলি এক গৃহবধূ৷ অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে শ্বাসরোধ করে খুন করে গঙ্গায় দেহ ভাসিয়ে দিল স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকেরা৷ চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের মুজাফফরনগরে৷ পুলিশ সূত্রে খবর, মেয়ের কোনও খোঁজ না পেয়ে তার বাবা থানায় অভিযোগ দায়ের করে৷ অভিযোগের ভিত্তিতেই তদন্ত শুরু করে পুলিশ৷ তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে খুন করা হয়েছে বছর তিরিশের নেহাকে৷

জানা গিয়েছে, চার বছর আগে কমল নামে এক যুবকের সঙ্গে বিয়ে হয় নেহাদেবীর৷ অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই পণ চেয়ে নানাভাবে হেনস্থা করত তার শ্বশুরবাড়ির লোকেরা৷ নেহাদেবীর বাবার অভিযোগ, এই একই কারণে তাদের মেয়েকে খুন করা হয়েছে৷ মৃত মহিলার স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷

পুলিশ জানিয়েছে, অন্য একটি কেসের তদন্ত করতে গিয়ে গঙ্গা থেকে নেহাদেবীর দেহ উদ্ধার হয়৷ দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে৷ তবে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, শ্বাসরোধ করেই খুন করা হয়েছে তাকে৷

২০১৮ সালে এই মুজাফফরনগরেই পণের দাবি না মেটানোয় আগুন লাগিয়ে হত্যা করা হয়েছিল এক গৃহবধূকে৷ ওই গৃহবধূকে জীবন্ত অবস্থায় পুড়িয়ে মেরে ফেলে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন৷