ভারতীয় নাগরিক প্রমাণ দিন! হায়দরাবাদে ১২৭ জনের কাছে গেল আধার কর্তৃপক্ষের নোটিশ

31
national news
aadhar

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সিএএ এনআরসি নিয়ে উত্তাল গোটা দেশ। সেই আবহের মাঝেই এবার ভারতে বসবাসকারী ১২৭ জনকে নিজের নাগরিকত্বের প্রমাণ দিতে বলা হল সরকারের তরফে। সম্প্রতি হায়দরাবাদে ঘটা এই ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। যদিও আধার কর্তৃপক্ষ ইউআইডিএআই-এর তরফে জানানো হয়েছে ওই ১২৭ জন বেআইনি ভাবে নিজেদের আধার কার্ড ইস্যু করেছেন। আধার পাওয়ার জন্য জমা দেওয়া তাদের নথি ভুয়ো।

ভারতে আধার নিয়ে বিতর্ক কিছু কম নেই। একের পর মামলা ঝুলছে আদালতে। এই আবহেই আদালতের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, আধার কোনওভাবেই নাগরিকত্বের প্রমাণ নয়। পাশাপাশি একাধিক ক্ষেত্রে আধার সংযুক্তকরণও বাধ্যতামূলক নয় বলে জানিয়ে দেয় আদালত। এমন পরিস্থিতির মাঝেই ইউআইডিএআই-এর নোটিশকে চ্যালেঞ্জ করে করে হাইকোর্টে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ওই ১২৭ জন। ওই ১২৭ জনের তালিকায় রয়েছেন মহ্মমদ সাত্তার নামে এক ব্যক্তি। সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘আধার কর্তৃপক্ষের তরফে আমাকে যে নোটিশ পাঠানো হয়েছে তাতে বলা হয়েছে আমি নাকি অবৈধভাবে আমার আধারকার্ড ইস্যু করেছি। আধার কার্ডের জন্য যে নথি আমি জমা দিয়েছিলাম তা নাকি ভুয়ো। পাশাপাশি এমন অভিযোগ জমা পড়েছে যারতে বলা হচ্ছে আমি ভারতীয়ই নই।’ সাত্তার আরও জানান, তাঁকে নাকি আধারের অফিসে উপস্থিত হয়ে নাগরিকত্বের প্রমাণ দিতে বলা হয়েছে। এবং সে যদি অফিসে না যায় তবে আধার কর্তৃপক্ষ তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবে।

এই প্রসঙ্গে আধার কর্তৃপক্ষের দাবি, হায়দরাবাদ পুলিশের কাছ থেকেই তাদের কাছে খবর আসে ওই ১২৭ জন ভুয়ো তথ্য দিয়ে আধার কার্ড সংগ্রহ করেছে। প্রাথমিক তদন্তেও আমরা দেখেছি ওই ব্যক্তিরা আধার পাওয়ার যোগ্য নয়। অবৈধ অভিবাসী। এরই ভিত্তিতে ওই ব্যক্তিদের নোটিশ পাঠিয়েছি আমরা। ওরা যদি ভারতের নাগরিক হয় তবে নিজেদের নাগরিকত্বের প্রমাণ দিক ওরা। একইসঙ্গে আধার কর্তৃপক্ষের তরফে এটাও জানিয়ে দেওয়া হয়, এই নোটিশ কোনওভাবেই নাগরিকত্বের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়। তবে অভিযোগ যদি সত্যি প্রমাণিত হয় সেক্ষেত্রে ওই ব্যক্তিদের আধার নম্বর বাতিল করা হবে।