এক সুপারিশেই রেলে চাকরি পাকা, মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে লক্ষাধিক টাকা হাতানোর অভিযোগে গ্রেফতার ২ ব্যাক্তি

69

মহানগর ডেস্ক: এক সুপারিশেই চাকরি পাকা। কিন্তু দিতে হবে লক্ষাধিক টাকা। এবার খবর মিলল, রেলওয়েতে চাকরি দেওয়ার অজুহাতে প্রায় ৫০ জনকে প্রতারণা করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে দুই ব্যক্তিকে। অভিযুক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে একজন ফরিদাবাদের বাসিন্দা রিতেশ, অন্যজন হরিয়ানার আম্বালার মোহিত রাজপুত। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ভারতীয় রেলে চাকরি দেওয়ার নাম করে বেকার যুবকদের ঠকিয়েছেন দুই ব্যক্তি।

এদিন জানা গিয়েছে, রেলমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সচিব তাঁর আত্মীয়। বললেই হয়ে যাবে চাকরি। এইভাবে অভিযুক্তদের ফাঁদে পা দিয়েছে কমপক্ষে ৫০ জন। তাদের থেকে মোটা টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, রিতেশ ও মোহিত রাজপুত নামের দুই ব্যক্তিত্ব এইভাবে লুটেছে বেকার যুবকদের। সম্প্রতি তাদের কাছে হরিয়ানা ও উত্তরপ্রদেশের বেশ কয়েকজন যুবক এসে প্রতারণার অভিযোগ লেখান। সকলেরই অভিযোগ প্রায় একরকম।

এরপরই তড়িঘড়ি তদন্তে নামে পুলিশ। তল্লাশি চালিয়ে জানা যায় রবিবার মূল অভিযুক্তের নাম। গ্রেফতার করা হয় তাকে। জেরা করলে ফরিদাবাদের রিতেশ স্বীকার করেন যে, রেলে চাকরি দেওয়ার নাম করে প্রতারণা করেছেন তিনি। ফাঁসিয়েছেন ৫০ জনের কাছাকাছি চাকরি খুঁজতে থাকা যুবককে। তারপরই পুলিশ পূর্ব দিল্লির নির্মাণ বিহার থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে, মোহিত রাজপুতকে।

এদিন তদন্ত করতে গিয়ে জানা গিয়েছে, রিতেশ একটি বেসরকারি সংস্থায় মার্কেটিং ট্রেনার হিসেবে কাজ করেন। সেখানেই শিক্ষানবীশ কর্মচারীদের রেলওয়েতে অ্যাসিস্টেন্ট হিসেবে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে টাকা হাতিয়ে নিতেন। দাবি করতেন রেলমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সচিব তাঁর আত্মীয়। কাকা সিবিআই অফিসার। দাবি করতেন বাবাও একটি বড় রাজনৈতিক দলের আর্থিক পরামর্শদাতা। তাদের এই চিকনি-চুপড়ি কথায় ফাঁদে পড়েছেন বেকার যুবকরা।