‘সমাজবাদী পার্টি শুধুমাত্র দাঙ্গাকারীদের টিকিট দিয়েছে, ওরা রাজ্যে মাফিয়াবাদ ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছে’, আক্রমণ যোগীর

11

মহানগর ডেস্ক: দেশের পাঁচ রাজ্যে বেজে গিয়েছে ভোটের দামামা। আর এই পাঁচ রাজ্যের তালিকায় রয়েছে দেশের গরিষ্ঠ রাজ্যের নামও। উত্তরপ্রদেশের এই আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে পাথেয় করেই নিজেদের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে মরিয়া রাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলো। বিশেষ করে রাজ্যের বিজেপি সরকারকে উৎখাত করতে কোমর বেঁধে ময়দানে নেমেছে সমাজবাদী পার্টি। আর ভোট যত এগিয়ে আসছে ততই যেন শাসক – বিরোধীদের মধ্যে কটাক্ষ পাল্টা কটাক্ষের ঝাঁঝ আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বুধবার সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বিরোধী শিবির সমাজবাদী পার্টিকে সরাসরি নিশানা করে তোপ দেগেছেন। তিনি এদিন বলেন,’ অখিলেশ যাদবের দল উত্তরপ্রদেশের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে সমস্ত দাঙ্গাকারীদের টিকিট দিয়েছে। পাঁচ বছরে দাঙ্গাকারী এবং পেশাদার অপরাধীরা হয় রাজ্য ছেড়ে চলে গেছে বা তারা জেলে ছিল। নির্বাচন ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে সমাজবাদী পার্টির প্রথম দফার তালিকায় সাহারানপুরের দাঙ্গাবাজ, মুজাফফরপুরের, কাইরানা থেকে হিন্দু ব্যবসায়ীদের দেশান্তরের জন্য দায়ী অপরাধীদের বুলন্দশহর, সিয়ানা, লোনি থেকে টিকিট দেওয়া হয়েছে। এই সমস্ত কার্যকলাপেই স্পষ্ট যে অপরাধী মানসিকতা, দাঙ্গাবাদের মানসিকতা, মাফিয়াবাদী মানসিকতা থেকে সমাজবাদী পার্টি হোক কিংবা কংগ্রেস, তারা কেউই কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হয়নি। তারা রাজ্যকে উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত করে রেখেছিল। আর এইবার তারা রাম রাজ্যে মাফিয়াবাদ ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছে।’

 

এরপর তিনি আরও বলেন,’ আমরা গত পাঁচ বছরে কোনও দাঙ্গা ছাড়াই, চাকরিতে কোনও বৈষম্য ছাড়াই একটি ভাল পরিবেশ দিয়েছি উত্তরপ্রদেশবাসীদের, এছাড়াও মহিলাদের সুরক্ষা এবং উন্নয়নের কাজ ত্বরান্বিত করা হয়েছে বিজেপির শাসন কালে।’

বুধবার রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মুলায়ম সিং যাদবের পুত্রবধূ অপর্ণা যাদব বিজেপিতে যোগদান করেছেন। আর এই প্রসঙ্গ টেনেই এদিন মন্তব্য করেন যোগী আদিত্যনাথ। তিনি বলেন,’ আমরা আশা করি দলের নতুন সদস্য তথা অপর্ণা যাদব তাঁর কাজের মাধ্যমে বিজেপিকে আরও শক্তিশালী করে তুলবেন।’