‘শত্রুঘ্ন সিনহা আসলে বহুরূপী সিনহা’, শেষবেলার প্রচারে বেরিয়ে তৃণমূল প্রার্থীকে কটাক্ষ অধীরের

29

মহানগর ডেস্ক: ১২ এপ্রিল রাজ্যের দুই কেন্দ্রে রয়েছে উপনির্বাচন। তারমধ্যে আজ শেষ বেলার প্রচার জোরকদমে ২ কেন্দ্রে চলেছে প্রচার। এখন দেখার বিষয় শেষ হাসি কে হাসবে। কিন্তু তার মধ্যেই আসানসোলের তৃণমূল প্রার্থী শত্রুঘ্ন সিনহাকে কটাক্ষ করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। রবিবাসরীয় প্রচারে বের হয়ে কংগ্রেস নেতা জানিয়েছেন, শত্রুঘ্ন সিনহা আসলে বহুরূপী সিনহা। তিনি কখন কোথায় আছেন তা দেখার জন্যে আপনারা গুগল ট্র‍্যাকার অন করুন। আসলে উনি কখন বিজেপি, কখন কংগ্রেস, কখন তৃণমূল- কেউ জানে না। এই ধরনের মানুষের উপর কোনও আস্থা নেই।

সম্প্রতি প্রচারে এসে আসানসোলে ইওর ভয়েস নামে একটি অরাজনৈতিক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন বলিউড অভিনেতা তথা তৃণমূলের প্রার্থী আর সেখান থেকেই তিনি জানিয়েছিলেন, আমি আপনাদের লোক। আমি বহিরাগত হলে ইনসাইডার কে? আসানসোলে ৫০ শতাংশ হিন্দিভাষী ভোট। তুমি তাদের ভোট চাইতে যাচ্ছো। তুমি তাদের নেতা বাছতে দিচ্ছো না। আর আমাকে বহিরাগত বলছো? আমি দেশের মানুষ, আমি দেশের সন্তান। ইন্দিরা গান্ধি থেকে রাহুল গান্ধি। সুচেতা কৃপালিনী থেকে সুষমা স্বরাজ। সবাই অন্য রাজ্যে গিয়ে লড়েছেন৷ আর আমি বহিরাগত হলে, প্রধানমন্ত্রী তো বারাণসীতে লড়তে এলেন। তাহলে কী করে আমি হলাম বহিরাগত আর উনি হলেন ইনসাইডার। আমি আসলে আপনার লোক৷ অন্তর্জলি যাত্রা আমার কেরিয়ারের শ্রেষ্ঠ সিনেমা। যা বাংলায় করেছি। আমি এফটিআইতে সুযোগ পেয়ে আমি ক্যালকাটা সেন্টার বাছাই করেছি।

পাশাপাশি তিনি আরও জানিয়েছেন, আমি বাংলার ভাষা, সংস্কৃতি, মিষ্টি ভালোবাসি৷ আমি ডাল, মুড়িঘণ্ট, ইলিশ মাছ আর ডাবের জল খাওয়া লোক। এর পরেও আমাকে বাইরের লোক বলে কেন? এরপর এই তৃণমূল প্রার্থীর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেয় কংগ্রেস নেতা।

তিনি জানিয়েছেন, আমরা বলেছিলাম ৩৫৫ ধারা জারি করতে। কিন্তু বিজেপি কিছু করল না। আসানসোলের এই ভোট দেখে মনে হচ্ছে পুরসভা-পঞ্চায়েতের ভোট হচ্ছে। একের পর এক ফ্লেক্স, পোস্টার, ব্যানার ছেঁড়া হচ্ছে আমাদের প্রার্থীর।