‘শুভেন্দু একা সনাতনী সেবক, আর ওঁর বাবা-ভাই দুজনেই তৃণমূলের টিকিটে জেতা সাংসদ’, কটাক্ষ আবু তাহেরের

13

মহানগর ডেস্ক: হটস্পট নন্দীগ্রাম। আর এই নন্দীগ্রাম নানান ধরনের রাজনীতি। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে সনাতনি সেবক বলে কটাক্ষ করলেন নন্দীগ্রামের ভূমি আন্দোলনের নেতা আবু তাহের। সোমবার নন্দীগ্রামের ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধে কমিটি মঞ্চের শুভেন্দু অধিকারীকে নিশানা করেন তিনি। এদিন তিনি বলেন, ওর বাড়িতে বাবা শিশির অধিকারী, ভাই দিব্যেন্দু অধিকারি দুজনে তৃণমূলের টিকিটে জিতে সাংসদ হয়েছে। আর ও একা কি না সনাতনী সেবক।

পাশাপাশি তিনি আরও জানান, বিশ্বাসঘাতক শুভেন্দু অধিকারী দিনের-পর-দিন মমতার খেয়ে বেইমানি করেছে। আমরা নন্দীগ্রাম আন্দোলন করেছি। আর ও লাশের ওপর রাজনীতি করেছেন। সব শেষ হয়ে গেলে সাদা পাঞ্জাবী পড়ে ছবিতে মালা দিয়ে এসে হাজির হয়েছেন। একইসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারীকে কটাক্ষ করেছেন মৎস্যমন্ত্রী অখিল গিরি। তিনি জানিয়েছেন, বাংলার মাটিকে কুলষিত করেছে বিজেপি। বাংলার মীরজাফর বারবার চেষ্টা করেছে মিথ্যে মামলা করে জমি আন্দোলনের নেতা ও নন্দীগ্রামের কর্মীদের সিবিআইয়ের ভয় দেখাতে। তাঁর টার্গেট নন্দীগ্রামে অশান্তি তৈরি করা। ওর এই পরিকল্পনা প্রয়োজনে নন্দীগ্রামের মানুষই পুরনো ধাঁচে রুখে দেবে।

সম্প্রতি, শুভেন্দু অধিকারী রক্ষাকবচ দেওয়ার জন্য নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্ট দিয়েছিল। আর তাতেই মান্যতা দিয়েছে শীর্ষ আদালত। রাজ্যের আবেদন খারিজ করা হয়েছে, তাই ফের একবার হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।