পুলিশ কেন গুণ্ডাদের পক্ষ নেয়? মোদী সরকারের কাছে উত্তর চান ওয়েইসি

17
kolkata bengali news

Highlights

  • পুলিশ কেন গুণ্ডাদের পক্ষ নেয়?
  • মোদী সরকারের কাছে উত্তর চান ওয়েইসি
  • জেএনইউ-এর ঘটনা নিয়ে তোলপাড় সারা দেশ

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জেএনইউ-এর ঘটনা নিয়ে তোলপাড় হয়েছে সারা দেশ৷ সরকার-বিরোধী দুই পক্ষ সমালোচনায় সরব৷ এআইএমআইএম-এর সভাপতি আসাদউদ্দিন ওয়েইসি জেএনইউ-এর ঘটনায় তাঁর সাহনুভূতি জানান৷ হায়দরাবাদের সাংসদ টুইটে বলেন, জেএনইউ-এর সাহসী ছাত্রদের তিনি কুর্নিশ করছেন৷ এই নিষ্ঠুর আক্রমণের অর্থ জেএনইউ পড়ুয়াদের শাস্তি দেওয়া৷ সরকার তাঁদের ভয় পায় বলেই শাস্তি দেওয়ার পথ নেই৷ এটা খুব খারাপ, অসহায় হয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরাও টুইটে সরব হয়েছেন৷ মোদী সরকারকে উত্তর দিতে হবে কেন পুলিশ গুণ্ডাবাহিনীর পাশে দাঁড়ায়?

ওয়েইসির দল টুইটে বলে কারা ছাত্রদের কণ্ঠস্বরে ভয় পাচ্ছে? তাদের ইঙ্গিত যে কেন্দ্রীয় সরকারের দিকে তা বুঝে নিতে সমস্যা হয় না৷ দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে রবিবার সন্ধ্যায় ছড়িয়ে পড়ল হিংসার আগুন। যার ফলে মাথায় আঘাত পেলেন ছাত্র সংসদ জেএনএসইউ-এর সভাপতি ঐশী ঘোষ। সূত্রের খবর, আড়াই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে চলা এই হামলায় আহত হয়েছেন আরও অনেকেই, যদিও সঠিক সংখ্যা এখনও জানা যায়নি। বেশ কিছু আহতকে ভর্তি করা হয়েছে এইমস-এর ট্রমা কেয়ার সেন্টারে।

এক বিবৃতিতে জেএনএসইউ দাবি করে, হামলার নেপথ্যে রয়েছে বিজেপির ছাত্র সংগঠন অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ, এবং পড়ুয়াদের পাশাপাশি হামলার নিশানা ছিলেন বেশ কিছু প্রফেসরও। তাদের বিবৃতিতে জেএনএসইউ জানায়, পুলিশের উপস্থিতিতেই লাঠি, রড, হাতুড়ি নিয়ে ঘুরছে এবিভিপি, সবাই মুখোশ পরে। নির্মমভাবে আক্রান্ত হয়েছেন জেএনইউএসইউ সভাপতি ঐশী ঘোষ, তাঁর মাথা থেকে অঝোরে রক্ত ঝরছে।