Solar Strom : সৌরঝড়ে হতে পারে ব্যাপক ইন্টারনেট বিভ্রাট, আশঙ্কা বিজ্ঞানীদের

36
সৌরঝড়ে হতে পারে ব্যাপক ইন্টারনেট বিভ্রাট

মহানগর ডেস্ক : আচ্ছা যদি আপনাকে বলা হয় একটি সারাদিন ইন্টারনেট ছাড়া কাটাতে? আচ্ছা বাদ দিন, যদি কয়েক ঘণ্টা আপনাকে বলা হয় ইন্টারনেট ছাড়া কাটাতে তাহলে কী করবেন? মনে হবে নাকি যে এক মুহূর্তের জন্য যেন পৃথিবীটাই থেমে গেছে ! সারা জগত থেকে আপনি বিচ্ছিন্ন! অবশ্যই মনে হবে। তবে এই শঙ্কাই এখন দানা বাঁধছে বিজ্ঞানীদের মনে। একটি সৌরঝড়(Solar Strom) পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে, আর যার জেরেই ইন্টারনেট ব্যবস্থা (Internet apocalypse)পুরোপুরি ভাবে বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এমনকি এই ঝড় মানুষের অন্যান্য যোগাযোগ মাধ্যমের ওপর এর প্রভাব ফেলতে পারে বন্ধ হয়ে যেতে পারে সব রকম রাস্তা।

সাধারণত, যখন কোনও অ্যাপে কোনও বিভ্রান্তি হয়, তখন ডেভেলপার/মালিকরা একটি সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে যান,সেখানে তাঁরা সমস্যাটির সমাধান করার চেষ্টা করেন। তবে আসন্ন সৌর ঝড়টি অনেক বেশি ভয়াবহ আকার নিতে করতে পারে এমনটাই আশঙ্কা করছেন বিজ্ঞানীরা।
এখন মনে হতেই পারে সৌর ঝড় আসলে কী! কী বা তার ভয়াবহ রূপ , আসুন দেখে নেওয়া যাক,

সৌরঝড় কী ?

সৌর ঝড় বা জিওম্যাগনেটিক ঝড় সৌর বায়ু দ্বারা সৃষ্ট হয়। সূর্য ক্রমাগত ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক কণা পাঠাতে থাকে। এই কণাগুলিকে সৌর বায়ু বলা হয়। এগুলো পৃথিবীর খুঁটির কাছে এসে অত্যন্ত সক্রিয় হয়ে ওঠে এবং পৃথিবীর চৌম্বকীয় শক্তি গ্রহটিকে প্রকৃত ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে।

ঐ সূর্যের ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক তরঙ্গগুলি পৃথিবীর মেরুগুলির কাছে অরোরা তৈরি করে। প্রতি ১০০ বছর অন্তর, সৌর বায়ু একটি খরে বড় সৌর ঝড় বা সৌর সুপারস্টর্মে রূপান্তরিত হয়। সাধারণ সৌর ঝড়ের থেকে, সুপারস্টর্ম পৃথিবীর মানুষের উপর বিশেষ করে আধুনিক জীবনধারার উপর বিধ্বংসী প্রভাব ফেলে।

কিভাবে একটি প্রভাব ফেলে?

SIGCOMM 2021 ডেটা কমিউনিকেশন কনফারেন্সে, “সোলার সুপারস্টর্মস: প্ল্যানিং ফর এ ইন্টারনেট অ্যাপোক্যালিপ্স” শিরোনামের একটি কাগজ বিতরণ করা হয়েছিল। ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটি ইরভিনের,সঙ্গীতা আব্দু জ্যোতির মতে, সূর্য শীঘ্রই আরও সক্রিয় হয়ে উঠবে। তাঁর মতে, আধুনিক প্রযুক্তিগত অগ্রগতিগুলি অপেক্ষাকৃত দুর্বল সৌর ক্রিয়াকলাপের সময়কালে ঘটেছিল। তাই ততটা প্রভাব ফেলতে পারেনি।

কিন্তু এখন অবস্থা পরিবর্তিত হতে চলেছে ।কারণ সূর্য অনেক বেশি সক্রিয় হয়ে উঠেছে এবং সময়ের সাথে সাথে আরও সৌর তরঙ্গ ছড়াচ্ছে। এটি মহাকাশ আবহাওয়ার দিকে পরিচালিত করবে, যা পৃথিবীতে জীবনকে সরাসরি প্রভাবিত করবে যেমনটি আমরা জানি, পরবর্তী দশকে ১.৬থেকে ১২ শতাংশের মধ্যে। সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়বে আন্ডারসি ক্যাবিলের উপর।

তবে, আঞ্চলিক ইন্টারনেট সৌরঝড় দ্বারা তুলনামূলকভাবে প্রভাবিত নাও হতে পারে, সমীক্ষা অনুসারে। এর কারণ হল ভূ -চৌম্বকীয় তরঙ্গ স্রোতের অপটিক্যাল ফাইবারে কোনও প্রভাব নেই। অপরদিকে, আন্ডারসি ক্যাবলগুলি ভীষণ ভাবে প্রভাবিত হতে পারে। এমনকি সৌরঝড় দ্বারা কয়েকটি কেবল একেবারের জন্য বিঘ্নিত হতে পারে, যার ফলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

আদৌ কি আমরা প্রস্তুত এই অফলাইন ব্যবস্থার জন্য ?

এখন একটি প্রশ্ন জাগতে পারে যে আমরা এত ব্যাপক বিভ্রান্তির জন্য প্রস্তুত কিনা। “আমাদের অবকাঠামো এই মাত্রার সৌর ঝড়ের জন্য প্রস্তুত নয়। তবে ক্ষতির পরিধি সম্পর্কে আমাদের প্রাথমিক জ্ঞান আছে” ওয়্যার্ডের একটি মন্তব্যে প্রতিক্রিয়া জানান আব্দু জ্যোতি ।

অন্যদিকে, সাম্প্রতিক এবং চলমান মহামারী আমাদের দেখিয়েছে যে আমরা এত বড় আকারের জরুরী অবস্থা মোকাবেলায় প্রস্তুত নই। উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক ইতিহাসে এরকম মাত্র দুটি ঝড় রেকর্ড করা হয়েছে – ১৯৫৯ এবং ১৯২১ সালে। যদি এই ধরনের সৌরঝড় আবার হয়, তাহলে এর অর্থ হল সবচেয়ে খারাপের জন্য প্রস্তুতি নেওয়ার সময় এসে গেছে।

Solar Strom

read more,

Flyover goof up: ‘হয় নিজেকে বদলান না হলে বিজ্ঞাপন এজেন্সি বদল করুন’, যোগী আদিত্যনাথকে তীব্র কটাক্ষ মহুয়া মৈত্রের

Maa Flyover: যোগীর পোস্টারে কলকাতার মা উড়ালপুলের ছবি, তীব্র কটাক্ষ আম আদমি পার্টির

Bhabanipur Bypoll: সোমের ঊষায় মনোনয়নপত্র জমা দেবেন বিজেপি প্রার্থী, সারা প্রস্তুতি

Tripura: মহিলাদের হাত ধরেই ত্রিপুরায় ঘাসফুল ফোটানোর চেষ্টা তৃণমূলের!

Maa flyover: বাংলার উন্নয়নের ছবি চুরি করে নিজের বলে চালাচ্ছে যোগী সরকার: অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়