Sonia-Mamata Meet : দিল্লিতে মোদী-দিদির দেখা, সোনিয়ার সঙ্গে কথা ঘিরে বাড়ছে সংশয়

63
sonia-mamata meet in delhi
দিল্লিতে সোনিয়া-মমতার বৈঠক ঘিরে অনিশ্চয়তা।

মহানগর ডেস্ক: পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে (Partha Chatterjee) নিয়ে ঝোড়ো হাওয়া কাটিয়ে দলকে থিতু করার চেষ্টা করে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ( Mamata Banejrjee)। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে (Teacher Recruitment Scandal)  কোটি কোটি টাকার কেলেঙ্কারির পর রদবদলও করেছেন মন্ত্রিসভার। দলের ভাবমূর্তি ফেরাতে দলকে নতুন করেও সাজিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। এবার মন্ত্রিসভায় রদবদলের পর এ সপ্তাহেই দিল্লি যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) সঙ্গে তাঁর দেখা করার কথা। বিরোধীরা অবশ্য সেটিংয়ের কথাটাই বারবার বলে চলেছেন।

তবে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে তিনি দেখা করবেন কিনা, তা নিয়ে এখনও তৈরি হয়ে আছে অনিশ্চয়তা। সূত্রের খবর, কংগ্রেসের কয়েকজন নেতা ও তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা মরিয়া হয়ে চেষ্টা করছেন, যাতে সোনিয়ার সঙ্গে দেখা করেন মমতা। তবে তা কতদূর বাস্তব হতে চলেছে,সেটা সময়ই বলবে। সামনেই উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচন। দুদলের অনেক নেতাই চাইছেন এ ব্যাপারে এক মঞ্চে সামিল হওয়ার। সূত্র জানাচ্ছে মমতা চাইছিলেন উপরাষ্ট্রপতি পদে বিরোধী প্রার্থী হিসেবে কোনও মুসলিম মহিলাকে বিরোধী প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করানোর।

তবে ঘাসফুল শিবিরের অভিযোগ, কংগ্রেস ও এনসিপি মার্গারেট আলভাকে প্রার্থী করার ব্যাপারে তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ করেনি। তবে এনসিপির সুপ্রিমো শরদ পাওয়ার দাবি করেছিলেন তিনি এ ব্যাপারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু তৃণমূল নেত্রী সভা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় সেটা সম্ভব হয়নি। কংগ্রেসও তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমোকে তাঁর অবস্থান বদলানোর ব্যাপারে বোঝানোর চেষ্টা করেছিল।

তৃণমূল শিবির জানিয়েছে, সেটা এখন আর সম্ভব নয়। সূত্রের খবর, কংগ্রেসের রণদীপ সূরজেওয়ালা ও প্রাক্তন বিজেপি নেতা সুধেন্দু কুলকার্নি, যিনি এখন বিরোধীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখে চলেছেন, তাঁরা তৃণমূল কংগ্রেস ও কংগ্রেসের মধ্যে শান্তিস্থাপনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী বিরোধী নেতাদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে কাজে লাগানোর তীব্র বিরোধিতা করে আসছেন। তিনি মনে মনে চাইছেন বিরোধীরা এককাট্টা হয়ে কেন্দ্রের পদক্ষেপের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছেন।

কংগ্রেসও তাদের ঝাড়খণ্ডের বিধায়কদের গ্রেফতারের ব্যাপারে রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। এমনকী তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষও ঝাড়খণ্ডের কংগ্রেস বিধায়কদের কাছ থেকে প্রায় আধকোটি টাকা উদ্ধার নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তবে রাজনৈতিক মহলের ধারণা, পরিস্থিতি একটু ঠান্ডা হলে সোনিয়ার সঙ্গে মমতার কথা হতে পারে।