Home Sports News Fraud: ৫.৫৩ লক্ষ টাকা প্রতারণা ‘প্রাক্তন ক্রিকেটারের’, প্রতারিত ঋষভ পন্থও

Fraud: ৫.৫৩ লক্ষ টাকা প্রতারণা ‘প্রাক্তন ক্রিকেটারের’, প্রতারিত ঋষভ পন্থও

অভিযুক্ত মৃণাঙ্ক সিং কর্ণাটকের একজন সিনিয়র আইপিএস অফিসার হওয়ার ভান করে ভারত জুড়ে অনেক বিলাসবহুল হোটেলের মালিক এবং পরিচালকদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে।

by Ritika Chakraborty
36 views

স্পোর্টস ডেস্ক: প্রাক্তন ক্রিকেটারের প্রতারণা (Fraud) ফাঁস। নয়াদিল্লির চাণক্যপুরি থানার পুলিশ হরিয়ানা থেকে এক ঠগকে গ্রেফতার করেছে। জানা গিয়েছে, ওই ব্যক্তি হরিয়ানার হয়ে অনূর্ধ্ব -১৯ ক্রিকেট খেলেছেন। অভিযুক্তের নাম মৃণাঙ্ক সিং। তিনি ২০২২ সালের জুলাই মাসে তাজ প্যালেস হোটেল থেকে ৫ লক্ষ ৫৩ হাজার টাকার প্রতারণা করেছিলেন। তখন তিনি এও দাবি করেছিলেন যে, তিনি আইপিএলের মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলের প্রতিনিধিত্ব করছেন। তদন্তের সময় জানা যায় যে, অভিযুক্ত মৃণাঙ্ক সিং কর্ণাটকের একজন সিনিয়র আইপিএস অফিসার হওয়ার ভান করে ভারত জুড়ে অনেক বিলাসবহুল হোটেলের মালিক এবং পরিচালকদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে।

তার প্রতারণার (Fraud) শিকারদের মধ্যে ভারতীয় দলের ক্রিকেটার ঋষভ পন্থও রয়েছে, যিনি ২০২০-২১ সালে ১.৬৩ কোটি টাকা প্রতারণার শিকার হয়েছিলেন। হোটেল, বার, রেস্তোরাঁ, তরুণী, ক্যাব চালক, ছোট খাবারের দোকান সহ অনেকের সঙ্গে প্রতারণা করেছে ওই ব্যক্তি। তার মোবাইলের প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, তরুণী মডেল ও মেয়েদের সঙ্গে তার পরিচয় ছিল। তার মোবাইলে অনেক ভিডিও ও ছবি পাওয়া গিয়েছে, যার কয়েকটি অত্যন্ত আপত্তিকর। পুলিশ তাকে আদালতে হাজির করে দুই দিনের হেফাজতে রেখেছে। আরও গভীরে তদন্ত করা হবে এবং তার মোবাইল ফোনও বিশ্লেষণ করা হচ্ছে। এই মামলায় আরও অনেক ভুক্তভোগী রয়েছে বলে অনুমান করছে পুলিশ।

গত ২২ আগস্ট ২০২২ সালে তাজ প্যালেস হোটেল নিউ দিল্লির নিরাপত্তা পরিচালক চাণক্যপুরি থানায় ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। বলা হয়েছিল যে মৃনাঙ্ক সিং, যিনি নিজেকে ক্রিকেটার বলে দাবি করেছিলেন তিনি ২২ জুলাই থেকে ২৯ জুলাই, ২০২২ সালে হোটেল তাজ প্যালেসে ছিলেন। হোটেলের বিল না দিয়েই তিনি হোটেল ছেড়ে পলাতক। যখন তার সঙ্গে টাকার জন্য যোগাযোগ করা হয়েছিল, তখন বলেছিল যে তার কোম্পানি অ্যাডিডাস অর্থ প্রদান করবে।

এরপর তার সঙ্গে হোটেলের ব্যাঙ্কের বিবরণ শেয়ার করা হয়। তিনি দুই লক্ষ টাকার অনলাইন লেনদেনের UTR নম্বর শেয়ার করেছেন: SBIN119226420797। অবিলম্বে, এটি হোটেল সিস্টেমে পরীক্ষা করা হয় এবং দেখা যায় যে তিনি কোনও অর্থ প্রদান করেনি। এরপর, হোটেল তাজের পক্ষ থেকে অর্থপ্রদান সংক্রান্ত পদক্ষেপের জন্য মৃণাঙ্ক সিং এবং তার ম্যানেজার মিঃ গগন সিং-এর সঙ্গে তাদের মোবাইলে যোগাযোগ করা হয়েছিল। তিনি বলেন, বকেয়া টাকা পরিশোধের জন্য তিনি নগদ টাকা দিয়ে তার ড্রাইভারকে পাঠাচ্ছেন। তবে হোটেলে কেউ পৌঁছায়নি। বকেয়া পরিশোধের জন্য অভিযুক্তের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু, প্রতিবারই মিথ্যা বক্তব্য ও প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভুল তথ্য দিতে থাকেন।

তদন্ত চলাকালীন, অভিযুক্ত মৃনাঙ্ক সিংয়ের ঠিকানায় CrPC এর ৪১ এ ধারার অধীনে একটি নোটিশ পাঠানো হয়েছিল। তবে সেখানে তাকে পাওয়া যায়নি। তার বাবা পুলিশকে বলেছেন যে, তিনি মৃণাঙ্ক সিংকে তার সম্পত্তি থেকে উচ্ছেদ করেছেন। চাণক্যপুরী থানা অভিযুক্ত মৃণাঙ্ক সিংকে খুঁজে বের করার জন্য সম্ভাব্য সব রকমের চেষ্টা করেছে। কিন্তু তার কোনও হদিস পাওয়া যায়নি। তিনি বারবার অবস্থান পরিবর্তন করে পুলিশের তদন্ত এড়াতে সব ধরনের ব্যবস্থা নিচ্ছিলেন।

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্তের মোবাইল ফোন বন্ধ রয়েছে। তাদের বেশিরভাগ যোগাযোগ সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম বা ইন্টারনেট চ্যাটিং অ্যাপ্লিকেশনগুলিতে হয়েছিল। তার পরিচিতদের জানানো হয়েছিল যে, তিনি ভারতে ছিলেন না এবং এখন দুবাইতে রয়েছেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তার বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য পরোয়ানা জারি করে এবং তিনি দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার বা গোপনে ভারতে চলে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে গ্রেফতারের জন্য একটি লুক আউট সার্কুলারও জারি করা হয়েছিল। ২৫ ডিসেম্বর অভিযুক্তকে দিল্লির আইজিআই বিমানবন্দরে অভিবাসন কর্মকর্তারা হেফাজতে নিয়েছিলেন। তিনি হংকং যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। এরপর তাকে চাণক্যপুরী থানায় হস্তান্তর করা হয়।

আইজিআই বিমানবন্দরে গ্রেফতারের পর অভিযুক্ত মৃনাঙ্ককে দিল্লি পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। আইজিআই বিমানবন্দরে তার হেফাজতের সময়, প্রতারক মৃনাঙ্ক সিং কর্ণাটকের একজন আইপিএস অফিসার হওয়ার ভান করে তাকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছিল। তিনি নিজেকে এডিজিপি অলোক কুমার হিসেবে পরিচয় দেন এবং ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের ডেকে তার ছেলে মৃনাঙ্ক সিংকে সাহায্য করতে বলেন, যিনি অবৈধভাবে অভিবাসন কর্মকর্তাদের দ্বারা আটক ছিলেন। জিজ্ঞাসাবাদের সময় সে বারবার পুলিশকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে। তিনি দাবি করেছেন যে, তার বাবা অশোক কুমার সিংও একজন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন এবং ১৯৮০ থেকে ৯০ এর দশক পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে অলরাউন্ডার হিসেবে খেলেছেন এবং বর্তমানে এয়ার ইন্ডিয়ার একজন ম্যানেজার।

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved