নেই ইন্টারনেট, অনলাইনে ক্লাস করতে রোজ ৫০ কিলোমিটার দূরে যেতে হয় পড়ুুয়াদের

21
national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনা পরিস্থিতিতে বন্ধ স্কুল৷ অনলাইনেই চলছে পড়াশোনা৷ যাদের ঘরে ঘরে ইন্টারনেট রয়েছে তাদের হাতের মুটোয় সমস্ত  পৃথিবী৷ কিন্তু যাদের কাছে ইন্টারনেট নেই তাদের কথা একবারও ভেবে দেখেছেন? ঘূর্ণিধড় নিস্বর্গ আছড়ে পড়ার পর মহারাষ্ট্রে রত্নাগিরি জেলার বহু প্রত্যন্ত গ্রামে ইন্টারনেট পরিষেবা বিচ্ছিন্ন রয়েছে৷ সেখানখার ছোট ছোট ছেলেমেয়েদের অনলাইনে ক্লাস করার জন্য রোজ পাড়ি দিতে হয় ৫০ কিলোমিটার পথ৷ একপ্রকার বাধ্য হয়েই প্রায় ২০০ পড়ুয়াকে এতটা পথ অতিক্রম করতে  হয় অনলাইনে ক্লাস করার জন্য৷ কারণ এই পরিস্থিতিতে ভার্চুয়াল ক্লাসই একমাত্র পথ৷

জুনের প্রথম দিকে মহারাষ্ট্রের উপকূলবর্তী জেলা রত্নাগিরির ওপরও আছড়ে পড়ে ঘূর্ণিঝড় নিস্বর্গ৷ যার জেরে তখন থেকেই জেলার প্রত্যন্ত গ্রামগুলিতে ইন্টারনেট পরিষেবা বিচ্ছিন্ন হয়ে রয়েছে৷ একমাস কেটে গেলেও এখনও পরিষেবা স্বাভাবিক হয়নি৷ যার জেরে বাধ্য হয়ে পড়ুয়ারা দ্বারস্থ হয় জাতীয় শিশুসুরক্ষা কমিশনের৷ এনসিপিসিআরের চেয়ারম্যান প্রিয়াঙ্ক কানুনগো জানিয়েছেন, তারা পড়ুয়াদের আশ্বাস দিয়েছে যাতে খুব শীঘ্রই ইন্টারনেট পরিষেবা স্বাভাবিক করার৷ সেই মত বিভিন্ন সেলুলার সংস্থার সঙ্গে কথা বলেছেন তারা৷

পাশাপাশি জেলা শাসকের দফতরেও সমস্যার কথা জানিয়ে চিঠি দিয়েছে কমিশন৷ কানুনগো বলেন, করোনা মহামারী ও লকডাউনের কারণে ২০০ শিক্ষার্থী ভার্চুয়াল ক্লাস করতে গিয়ে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে৷ একইসঙ্গে ইন্টারনেট পরিষেবা স্বাভাবিক না থাকায় তাদের প্রতিদিন ৫০ কিলোমিটারপ পথ পাড়ি দিতে হচ্ছে৷ তিনি আরও বলেন, এই পরিস্থিতিতে পড়ুয়াদের জন্য ইন্টারনেট ব্যবস্থা অতি প্রয়োজনীয়৷