বিপ্লব দেবের সরকারের সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে এবার সরব হলেন খোদ বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন, ডিজিকে চিঠি পাঠিয়ে জানালেন অভিযোগ

13
বিপ্লব দেবের সরকারের সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে এবার সরব হলেন খোদ বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন, ডিজিকে চিঠি পাঠিয়ে জানালেন অভিযোগ

মহানগর ডেস্ক: সামনেই পুরভোট ত্রিপুরায়। আর এই নির্বাচনের আগে সেখানকার বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে বারংবার সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। তবে এইবার ঘাসফুল শিবিরের কোনও নেতা নেত্রী নয়, গেরুয়া শিবিরের এই লাগাতার সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সুর চড়াতে শোনা গেল খোদ বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মনকে। আজ্ঞে হ্যাঁ, বিপ্লব দেবের সরকারের বিরুদ্ধে শুক্রবার রাজ্য পুলিশের ডিজিকে চিঠি পাঠিয়েছিলেন তিনি।

এই চিঠিতে তিনি লিখেছিলেন, ‘ আগরতলার পুরনিগমের ওয়ার্ড নম্বর ৫,৬,৭,৮,১০,১২,১২,১৩ এই ওয়ার্ডগুলি অত্যন্ত উত্তেজনাপ্রবণ। এই আটটি ওয়ার্ডের বুথগুলিতে নির্বাচনের সময় গন্ডগোলের প্রবল আশঙ্কা রয়েছে। এছাড়াও সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষদের বিশেষত সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষদের তরফ থেকে আমার কাছে অভিযোগ এসেছে যে তাঁদের ভয় দেখানো হচ্ছে। বিশেষ করে, ভাতি অভয়নগর, বিতরবন, মোল্লাপাড়া, দাসপাড়া, ঋষিকলোনি, এইসমস্ত এলাকাগুলিতে মানুষ ভীত এবং সন্ত্রস্ত হয়ে রয়েছেন। আপনার নিকট আমার অনুরোধ, আসন্ন পুরভোটে মানুষ যেন নির্বিঘ্নে ভোটদান করতে পারেন সেই বিষয়টি নিশ্চিত করুন। একজন বিধায়ক হিসেবে আপনার প্রতি এবং ত্রিপুরা পুলিশের প্রতি আমার বিশ্বাস রয়েছে।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আগামী ২৫ নভেম্বর ত্রিপুরেশ্বরির রাজ্যে ১৩ টি পুরসভা এবং ৬ টি নগর পঞ্চায়েতে রয়েছে নির্বাচন। ভোটগ্রহণ হবে মত ৩২৪ টি ওয়ার্ডে। আর এই নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশিত হবে ২৮ নভেম্বর। এই পুরভোটের নির্বাচনী প্রচারে নেমে জোড়াফুল শিবিরের নেতা নেত্রীরা আক্রান্ত হচ্ছেন এবং হিংসার শিকার হচ্ছেন, এমনটাই অভিযোগ তুলে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ সুস্মিতা দেব। তারপর শীর্ষ আদালতের তরফ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, নির্বাচনের আগে প্রত্যেক রাজনৈতিক দলের নেতা নেত্রীদের নির্বিঘ্নে এবং শান্তিপূর্ণ ভাবে প্রচার করতে দিতে হবে। আর এই দায়িত্ব সম্পূর্ণ ভাবে ত্রিপুরা রাজ্য সরকারেরই ওপর থাকবে। পাশাপাশি প্রার্থীদের যথাযথ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।