তৃণমূল বিধায়কদের রাতারাতি সম্পত্তি বৃদ্ধি! ইডি, আয়কর দফতরে যেতে উদ্যোগী সুজন

41
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক: সারদা ও রোজভ্যালি সহ একাধিক চিটফান্ড মামলায় কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে বিগত পাঁচ দিন ধরে শিলংয়ের দফতরে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। এর মধ্যেই শাসক দলের কিছু প্রভাবশালী বিধায়কের নামের তালিকা নিয়ে ইনকাম ট্যাক্স ও এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের অফিসে যেতে চান বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী।

বামেদের অভিযোগ, ২০১১ সালে রাজ্যে তৃণমূল ক্ষমতায় আসার আসার পর থেকেই, লাফিয়ে বেড়েছে শাসক দলের বিধায়কদের সম্পত্তির পরিমাণ। কারও বেড়েছে পাঁচ গুণ তো কারও দশ গুণ বা কারও তার চেয়েও বেশি। মাত্র কয়েক বছরে শাসক দলের বিধায়কদের সম্পত্তির পরিমাণ এত গুণ কী করে বাড়ল সেই প্রশ্ন তুলেছে বামেরা। তাদেরই এবার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার নজরে আনতে উদ্যোগী হয়েছে বাম নেতৃত্ব।

শাসকদলের এমনই বহু বিধায়কের নাম ও তাঁদের সম্পত্তির তালিকা নিয়ে তাই ইডি ও ইনকাম ট্যাক্সের অফিসে দেখা করার জন্য সময় চেয়েছেন বাম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তী। বুধবার দুপুরে তিনি আয়কর দফতরের অফিসে যেতে পারেন বলে সূত্রের খবর। একইসঙ্গে বৃহস্পতিবার সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের অফিসে বাম বিধায়করা যেতে পারেন বলে জানা গিয়েছে।

মহানগরকে সুজন চক্রবর্তী জানান, দুটি দফতরেই তাদের তরফে সময় চাওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির তরফে সময় পেলেই দ্রুত বিধায়কদের নাম ও সম্পত্তির তালিকা তাদের হাতে তুলে দিতে চান বামেরা।