প্রখর রোদ বাড়ায় অন্ধত্বের ঝুঁকি, এই গরমে খেয়াল রাখুন চোখের

104

মহানগর ডেস্ক :তীব্র দাবদাহে প্রাণ ওষ্ঠাগত প্রত্যেকের। অথচ পেটের তাগিদে বেরোতেই হচ্ছে। ঘড়ির কাঁটা ৯টা ছুতে না ছুতেই আগুনের হল্কা বইছে বাইরে। কোথাও কোথাও গরমের জন্য জারি হয়ে গিয়েছে সর্তকতা। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন অত্যন্ত প্রয়োজন না থাকলে সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ৩ টে পর্যন্ত বাড়ির বাইরে না বেরোতে। কিন্তু তা বললে কী ভাবে হবে! তাই আপনাকেই নিতে হবে যাবতীয় ব্যবস্থা।

 

কিন্তু জানেন কি দীর্ঘক্ষন রোদে থাকলে শরীরের যেমন ক্ষতি হয় ঠিক একইভাবে রেটিনা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। চিকিৎসকেরা জানাচ্ছেন প্রখর রোদ অন্ধত্ব এবং ক্যান্সারের ঝুঁকি দুটোই বাড়িয়ে দেয়। এছাড়া চোখ লাল হয়ে যাওয়া, চোখের পাতা ফুলে যাওয়া, ব্যাকটেরিয়াল কনজাঙ্কটিভাইটিস ইত্যাদি সমস্যা দেখা দেয়। দেখে নিন এই গরমে চোখ ভালো রাখতে গেলে কী কী করা উচিত..

 

১) যাঁরা কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করেন তাঁদের মাথায় রাখতে হবে অবশ্যই হাত ধুয়ে পরিষ্কার করে তবে লেন্স করতে হবে। তা নাহলে হাতের ময়লা এবং সূর্যের তাপে চোখের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।

 

২) রোদচশমা কেবলমাত্র ফ্যাশনের জন্য নয়। প্রখর রোদের হাত থেকে চোখকে রক্ষা করে রোদচশমা। তাই ইউভিএ এবং ইউভিবি যুক্ত রোদচশমা ব্যবহার করা উচিত।

 

৩) কন্টাক্ট লেন্স যদি ইউভি রশ্মির হাত থেকে সুরক্ষা প্রদান করতে না পারে তাহলে অবশ্যই রোদ চশমা পড়া উচিত। কড়া রোদের হাত থেকে রক্ষা করবে এটি।

 

৪) পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খাওয়ার কথা নতুন করে বলার কিছু নেই। অপর্যাপ্ত জল যেমন শরীরের ক্ষতি করে তেমনি চোখের ক্ষতি করে। চোখ শুষ্ক হয়ে গেলে চোখ দিয়ে জল পড়া ,লাল হয়ে যাওয়া ইত্যাদি সমস্যা দেখা দেয়।

 

৫) ৩০ মিনিট অন্তর অন্তর চোখেমুখে ঠান্ডা জলের ঝাপটা দিতে হবে। তাতে চোখ আরাম পাবে, রেটিনা শুকিয়ে যাবে না। রোদের তাপ থেকে রক্ষা পাবে চোখ।