ভোটের কাজে ‘মাত্র’ ৩ জন শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে, রিপোর্টে জানাল প্রশাসন

32

মহানগর ডেস্কঃ উত্তর প্রদেশে পঞ্চায়েত নির্বাচনের কাজে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে হাজারেরও বেশি শিক্ষকের। এমনটাই অভিযোগ করা হয়েছিল সে রাজ্যের শিক্ষক সংগঠনের পক্ষ থেকে। যদিও এই অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে জেলা শাসক।

পঞ্চায়ের নির্বাচনের সময় মানা হয়নি করোনা গাইডলাইন, যার ফলে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৬২১ জন শিক্ষকের, এমনটাই অভিযোগ করা হয়েছিল সংগঠনের পক্ষ থেকে। এই দাবি একেবারেই স্বীকার করেনি উত্তর প্রদেশ সরকার। জেলা শাসক জানিয়েছে, পঞ্চায়েত ভোটের কাজে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে মাত্র ৩ জন শিক্ষকের।

আরএসএস-এর এক শাখা সংগঠন রাষ্ট্রীয় শিক্ষক মহাসংঘের দাবি, বিভিন্ন প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক এবং অশিক্ষক কর্মী মিলিয়ে ভোটের সময় মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২০৫ জনের। অন্য এক সংগঠক ‘বেসিক শিক্ষা বিভাগ’ দাবি করছে, ভোটের ট্রেনিং ক্যাম্পে যাওয়ার দিন থেকেই এক ভোট কর্মী বলে পরিগনিত হয়ে থাকেন শিক্ষকরা। গণনার পর যতক্ষণ না তারা বাড়ি ফিরছেন তারা ভোটের কাজেই রয়েছেন বলে ধরা হবে।