‘এমন দুর্দান্ত আয়োজন করার জন্য ধন্যবাদ’, বারাণসীর কাশি বিশ্বনাথ মন্দিরে যাওয়ার পর প্রতিক্রিয়া দেউবার স্ত্রীর

32

মহানগর ডেস্ক: বারাণসীতে এত সুন্দর অভ্যর্থনা পেয়েছেন যে, ভাষা খুঁজে পাচ্ছেন না ধন্যবাদ জানানোর। এদিন নেপালের প্রধানমন্ত্রী শেখ বাহাদুর দেউবার স্ত্রী আরজু রানা দেউবা বলেছেন, বারাণসীতে তাঁর স্বামী যে অভ্যর্থনা পেয়েছেন তাতে মুগ্ধ হয়েছেন তিনি। জানিয়েছেন যে, তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে ধন্যবাদ জানাতে চান এমন একটি দুর্দান্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করার জন্য। বলেছেন, “ভারত ও নেপালের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক চিরকাল অব্যাহত থাকবে”।

নেপালের প্রধানমন্ত্রী বারাণসীতে আসার কারণে আজ, সেই শহর সেজে উঠেছিল তাঁর পোস্টার আর হোর্ডিংয়ে। এমনকি এদিন দেউবার স্ত্রী জানিয়েছেন, সেখানকার জনগণের অভ্যর্থনায়ও মুগ্ধ হয়েছেন তারা। আজ নেপালের প্রধানমন্ত্রী দেউবার সঙ্গে বারাণসী পৌঁছেছিলেন তাঁর স্ত্রী আরজু রানা। বিখ্যাত কাল ভৈরব এবং কাশি বিশ্বনাথ মন্দিরে প্রার্থনা করেছেন। তাঁদের লাল বাহাদুর শাস্ত্রী বিমানবন্দরে স্বাগত জানিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

সেখানে ভারতীয় ও নেপালের পতাকা হাতে স্কুলের শিশুরা প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানায়। পরে কাল ভৈরব এবং কাশী বিশ্বনাথ মন্দির পরিদর্শন করেন তিনি। এদিন বিমানবন্দর থেকে তাজ হোটেল পর্যন্ত সড়কের ১৫টি স্থানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে অতিথিদের বরণ করা হয়। এরইসঙ্গে ললিতা ঘাটে অবস্থিত পশুপতিনাথ মন্দির তিনি পরিদর্শন করবেন এবং যোগী আদিত্যনাথের সঙ্গে বৈঠক সারবেন বলে রয়েছে খবর।

অন্যদিকে এদিন তাঁকে কাশী বিশ্বনাথ মন্দিরে স্বাগত জানাতে বিভিন্ন শিল্পীরা ঐতিহ্যবাহী নিত্য পরিবেশন করেন। এছাড়াও নেপালের প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে ফুলের পাপড়ি বর্ষণ করা হয়। বাজানো হয় ডমরু। এদিন কাশী বিশ্বনাথ মন্দিরে নেপালের প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর স্ত্রী ভগবান শিবের কাছে রুদ্রাভিষেক করেন। পাশাপাশি এদিন তাঁরা কাশী বিশ্বনাথ ধামের ইতিহাস নিয়ে একটি শর্টফিল্মও দেখেছেন। ২০২১-এর জুলাইয়ে প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রথম দ্বিপাক্ষিক বিদেশ সফরে শুক্রবার নয়াদিল্লিতে পৌঁছেছেন তিনি। এদিন বারাণসীতে পৌঁছে যে আদর-আপ্যায়ন পেয়েছেন, তার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি ও যোগীকে।