দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ,  দু’দিনের ভারত সফর বাতিল করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

9
kolkata bengali news

মহানগর ডেস্ক:  ভারতে করোনায় ঢেউ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। দেশেগত দুই দিন দৈনিক আড়াই লক্ষের বেশি আক্রান্ত হয়েছেন। এই পরিস্থিতি ভারত সফর বাতিল করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে তিনি ভার্চুয়াল বৈঠক করবেন বলে জানা গিয়েছে। এপ্রিল মাসের ২৫ তারিখে দুই দিনের সফরে জনসনের ভারতে আসার কথা ছিল। সোমবার বিদেশ মন্ত্রকের তরফে এক বিবৃতি এই খবর প্রকাশ করা হয়েছে।

বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনির্বান বাগচী জানিয়েছেন, ভারতে করোনা পরিস্থিতিকে নজরে রেখে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী এই সফর বাতিলের সিদ্ধান্তে ঐক্যমতে পৌঁচেছেন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের আগামী সপ্তাহে ভারত সফরে আসার কথা ছিল। তিনি জানিয়েছেন, মোদির সঙ্গে জনসনের ভার্চুয়াল বৈঠক হবে। এই বৈঠকে ভারত ও ব্রিটেনের পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নতির ওপর জোর দেওয়া হবে।

এর আগে করোনার জেরে সাধারণতন্ত্র দিবসে প্রধান অতিথি হিসেবে ভারতের আমন্ত্রণ ফিরিয়ে দেন। সেই সময় ব্রিটেনে করোনা পরিস্থিতি মারাত্মক আকার ধারণ করে। সেই সময় বরিস জনসন প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, জি-৭ বৈঠকের আগে তিনি ভারত সফরে আসবেন। জুন মাসে জি-৭ বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তিনি ব্রিটেনে জি-৭ বৈঠকে আমন্ত্রণ জানান।

ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মারাত্মক প্রভাব ফেলেছে। প্রতিদিন গড়ে এক হাজারের বেশি মানুষ করোনায় মারা যাচ্ছেন। একসপ্তাহ ধরে দৈনিক করোনা আক্রান্ত দুই লক্ষের বেশি। দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ লক্ষ ৭৫ হাজার মানুষ। করোনায় দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১৬১৯ জনের। করোনার সেকেন্ড ওয়েভে সব থেকে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মহারাষ্ট্র। রবিবার করোনায় মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮ হাজার ৬৩১ জন।  শুধু মহারাষ্ট্রে করোনায় মারা গিয়েছে ৫০৩ জন। মহারাষ্ট্রে ইতিমধ্যে করোনার ওষুধ , অক্সিজেনের অভাব দেখতে পাওয়া গিয়েছে। শুধু মহারাষ্ট্র নয়, সোমবার সাংবাদিক সম্মেলনে দিল্লি সরকার জানিয়েছে, তাদের স্বাস্থ্য পরিষেবা ভেঙে পড়েছে। দিল্লিতে সোমবার রাত ১০টা থেকে আগামী ছয় দিনের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।