‘চাপের মুখে হলোগ্রাম মূর্তি বসিয়ে মুখ রক্ষা করার চেষ্টা করেছে কেন্দ্র’, দাবি কুণাল ঘোষের

10

মহানগর ডেস্ক: নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীতে দেশনায়ককে সম্মান জানানোর জন্য হলোগ্রাম মূর্তির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। যতদিন না নেতাজি প্রকৃত মূর্তিটি প্রস্তুত হচ্ছে ততদিন ওই হলোগ্রাম মূর্তি ওখানে থাকবে, এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে কেন্দ্রে তরফ থেকে। এবার এই বিষয়টা নিয়ে কেন্দ্রকে তোপ দাগলেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। তিনি বললেন, ট্যাবলো নিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছে কেন্দ্র। তাই কোনও রকম পূর্ব পরিকল্পনা ছাড়াই হঠাৎ করে মূর্তি বসানোর কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিন কুণাল ঘোষ বলেন, “কেন নেতাজির জন্মবার্ষিকীর দিন উদ্বোধন করা হল না প্রকৃত মূর্তি? আসলে ব্যাপারটা হল প্রস্তুতি হয়নি সেই প্রকৃত মূর্তিটি। ট্যাবলো নিয়ে চাপের মুখে পড়েছে কেন্দ্র। তাই বাধ্য হয়ে হঠাৎ করেই হলোগ্রাম মূর্তি স্থাপনের ব্যাপারটি ঘোষণা করতে হল কেন্দ্রকে। নেতাজির জন্ম দিনে কেন জাতীয় ছুটি ঘোষণা করছে না কেন্দ্র! নেতাজির অন্তর্ধান রহস্য উন্মোচন করবে বলে কথা দিয়েছিল কিন্তু তারও কোনও কাজ হয়নি। আসলে বিজেপি সরকারের নীতির প্রতি কোনও সম্মান নেই, শুধুমাত্র চাপের মুখে পড়ে বাধ্য হয়েছে মূর্তি স্থাপনের বিষয়টি ঘোষণা করতে। ”

এছাড়াও এদিন কুণাল বাবু রাজ্যের স্কুল কলেজ খোলা নিয়ে বিরোধীদের দাবিতেও মুখ খোলেন। তিনি বলেন, “আমাদের বিদ্যালয়গুলিতে এমন পরিকাঠামো নেই যেখানে করোনাকে রোখা যায়। তাছাড়া এতগুলো শিশুর জীবন নিয়ে আমরা ছিনিমিনি খেলতে পারি না।” এরপর তিনি সিপিআইএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর নাম করে এদিন বলেন, “কেরলে তো সুজন বাবুদের সরকার এই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও স্কুল খুলে ছিল। কিন্তু তাতে লাভ কি হল আবার তো বন্ধ করে দিতে বাধ্য হল। ওনারা এতজন পড়ুয়ার জীবন নিয়ে যথারীতি খেলা করছে।”