প্রস্তুতকারী ‘হ্যাল’, একটানা ৯০দিন ভেসে থাকতে সক্ষম ড্রোন পাচ্ছে ভারতীয় সেনা

28
drone
সামরিক বাহিনীকে শক্তিশালী করতে আসছে নয়া ড্রোন

মহানগর ডেস্ক: হ্যালের হাত ধরে এবার সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি সৌরশক্তি চালিত ড্রোন পেতে চলেছে ভারত। অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি এই চালকহীন যুদ্ধবিমানটি প্রায় ৬৫হাজার ফুট উঁচুতে একটানা নব্বই দিনের বেশি সময় ধরে থাকতে পারবে বলে জানিয়েছে হ্যাল। প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রের খবর, আগামী তিন থেকে পাঁচ বছরের মধ্যেই হিন্দুস্তান অ্যারোনটিস লিমিটেড বা হ্যালের তৈরি এই ড্রোনটি যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবে।
সূত্রের খবর, দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ‘ইনফিনিটি’ নামের এই ড্রোনটি ভবিষ্যতে ভারতীয় সীমান্ত প্রতিরক্ষার ক্ষেত্রে স্থলসেনা, নৌসেনা এবং বায়ুসেনার কাছে গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার হয়ে উঠবে। চিন এবং পাকিস্তানের হাতে থাকা ড্রোনের তুলনায় সামরিক উৎকর্ষতার বিচারে অনেক বেশি এগিয়ে আছে ‘ইনফিনিটি’। সন্ত্রাস বিরোধী লড়াইয়েও এই ড্রোন ব্যবহার করা যাবে বলে হ্যাল সূত্রের খবর।
অত্যাধুনিক সেন্সরে সজ্জিত ‘ইনফিনিটি’ ৬৫হাজার ফুট উঁচু থেকেও শত্রু ড্রোনগুলির ওপর নজর রাখতে পারবে। পাশাপাশি এই ড্রোনটি লাইভ ভিডিয়ো করতেও সক্ষম। ফলে সীমান্তবর্তী অঞ্চলে যদি কোনও ড্রোন হামলা হয়, এটি তৎক্ষণাৎ ভারতীয় সেনাকে সতর্ক করতে পারবে বলে জানা যাচ্ছে।
অন্যদিকে, ভারতীয় বিমান যদি শত্রু দেশের ওপর হামলা করে, তা হলেও তার ভিডিয়ো প্রমাণ হিসাবে থেকে যাবে ভারতীয় সেনার কাছে। প্রসঙ্গত, ২০১৯-এ বালাকোটে পাকিস্তানি জঙ্গি ঘাঁটিতে ভারতীয় বায়ুসেনার হামলার ভিডিয়ো নিখোঁজ থাকায় সেই মিশনের সাফল্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল দেশবাসী।
‘ইনফিনিটি’ সম্পর্কে হ্যাল জানিয়েছে যে, এই ড্রোনটি কেবলমাত্র সামরিক লড়াইয়ের জন্যই নয়, এটির ‘ইনফ্রা রেড’ প্রযুক্তির সাহায্যে বিপর্যয় মোকাবিলা দলের সঙ্গেও কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করবে। পাশাপাশি এই ড্রোন উপকূলবর্তী অঞ্চলগুলিতে নজরদারির জন্য নৌ বাহিনীকে সমান সাহায্য করতে পারবে বলে জানিয়েছে হ্যাল।