হাসপাতালেই আক্রান্তকে ধর্ষণ, ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যু করোনা রোগীর

13

মহানগর ডেস্ক:  করোনা রোগীদের যখন বাড়িতে রেখে চিকিৎসা সম্ভব হয় না, তখন তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় আরও ভালো চিকিৎসার জন্য। কিন্তু সেখানে যদি মহিলা রোগীরা নিরাপদ না হন, সুরক্ষিত না হন, তাহলে তাঁরা কোথায় যাবেন। পুলিশ জানিয়েছে, ভোপালের একটি সরকারি হাসপাতালে এক মহিলা করোনা রোগীকে ধর্ষণ করে একজন পুরুষ নার্স। ওই ঘণ্টার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই করোনা রোগীর মৃত্যু হয়।

বৃহস্পতিবার ভোপাল পুলিশ জানিয়েছে, ৪৩ বছররের এক করোনা রোগী ভোপাল মেমোরিয়াল  হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারে ভর্তি হয়েছিল। ৬ এপ্রিল ধর্ষণের অভিযোগ করা হয়েছিল। এক চিকিৎসকের বয়ানের ভিত্তিতে অভিযুক্তকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। জানা যায়, ঘটনার পর ওই করোনা রোগীর পরিস্থিতির দ্রুত অবনতি হতে থাকে। তাঁকে ভেন্টিলেশনে দেওয়া হয় দ্রুত। ওই দিনে সন্ধের পর মহিলার মৃত্যু হয়। ঘটনার সঙ্গে যুক্ত সন্দেহে ৪০ বছরের  সন্তোষ আহিরওয়ার নামের এক ব্যক্তিকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। বর্তমানে অভিযুক্তকে ভোপাল সেন্ট্রাল জেলে রাখা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

প্রবীণ পুলিশ আধিকারিক ইশরত ওয়ালি জানিয়েছেন, মারা যাওয়ার আগে নির্যাতিতা জানিয়েছিলেন, তাঁর পরিচয় যেন গোপন রাখা হয়। তাঁর ঘটনা যেন কাউকে বলা না হয়। সেই কারণেই এতদিন এই তথ্য তদন্তকারী দলের বাইরে কারও সঙ্গে ভাগ করা হয়নি। এর আগেও মদ্যপ অবস্থায় যৌন হেনস্তার অভিযোগে অভিযুক্তকে একবার সাসপেন্ড করা হয়েছিল।