Home Featured Rashtrapatni Row: ‘লিঙ্গের গোলকধাঁধায় হারিয়ে যাওয়ার কোনও অর্থ নেই’, অধীরকে নিশানা মণীশ তিওয়ারির

Rashtrapatni Row: ‘লিঙ্গের গোলকধাঁধায় হারিয়ে যাওয়ার কোনও অর্থ নেই’, অধীরকে নিশানা মণীশ তিওয়ারির

by Anamika Nandi
Rashtrapatni Row: 'লিঙ্গের গোলকধাঁধায় হারিয়ে যাওয়ার কোনও অর্থ নেই', অধীরকে নিশানা মণীশ তিওয়ারির

মহানগর ডেস্ক: কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরীর ‘রাষ্ট্রপত্নী’ মন্তব্যে বাকযুদ্ধ জারি রয়েছে বিজেপি এবং কংগ্রেসের। এই আবহে অধীর বাবুর সমালোচনা করলেন কংগ্রেস (Congress) নেতা মণীশ তিওয়ারি (Manish Tiwari)। তাঁর বক্তব্য, “সাংবিধানিক পদে পুরুষ বা মহিলা যেই থাকুক না কেন দু’জনেরই সমান সম্মান প্রাপ্য‌। সেই প্রতিষ্ঠানকে সম্মান করা উচিত”।

এমনিতেই বিগত কয়েক মাস ধরে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দলের সঙ্গে মতের মিল হচ্ছে না, মণীশ তিওয়ারির। এক্ষেত্রেও সেরকমটাই দেখা গিয়েছে। শুক্রবার তিনি টুইট করে বলেন, “ভদ্রমহিলা হোক বা ভদ্রলোক, সাংবিধানিক পদে যিনি আসেন তাঁর সমান সম্মান প্রাপ্য। সেই প্রতিষ্ঠানকেও সম্মান দিতে হবে। কোনও নির্দিষ্ট পদে আসীন ব্যক্তি সেই পদের অনুরূপ হয়ে ওঠেন। কাজেই লিঙ্গের গোলকধাঁধায় হারিয়ে যাওয়ার কোনও অর্থ নেই।

সম্প্রতি অগ্নিপথ প্রকল্প নিয়েও দলের সঙ্গে মতের মিল হয়নি তিওয়ারির। কংগ্রেস যেখানে অগ্নিপথের তীব্র বিরোধিতা করেছিল সেখানে এক সম্পাদকীয়তে তিনি বলেছিলেন, অগ্নিপথ প্রকল্পকে প্রতিরক্ষা সংস্কারের বৃহত্তর প্রেক্ষাপটে দেখা উচিত। গ্র্যান্ড ওল্ড পার্টি জানিয়েছিল, মণীশের মতামত একেবারেই ব্যক্তিগত। এদিকে অধীর চৌধুরীর “রাষ্ট্রপত্নী” মন্তব্য নিয়েও নিজের আলাদা মতামত দিয়েছেন তিওয়ারি।

বৃহস্পতিবার সংসদে ঝড় বয়ে গিয়েছে এই মর্মে। কংগ্রেস নেতার তীব্র নিন্দা করেছে বিজেপি। অভিযোগ, ইচ্ছাকৃতভাবে দেশের প্রথম আদিবাসী রাষ্ট্রপতিকে অসম্মান করেছেন অধীর বাবু। তাই সনিয়া গান্ধীকে গোটা দেশের সামনে ক্ষমা চাইতে হবে বলে, দাবি গেরুয়া শিবিরের। তবে লোকসভার দলনেতা দাবি করেন, রাষ্ট্রপতিকে অসম্মান করার কোনও উদ্দেশ্য তাঁর ছিল না। ওই কথাটি ভুলে বলে ফেলেছেন। প্রয়োজনে রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাইলেও, ভন্ডদের কাছে ক্ষমা চাইবেন না।

You may also like