‘এমপি কোটা থেকেও ৭ শতাংশ কমিশন নিয়েছে ওরা’, ফের তৃণমূলকে নিশানা শুভেন্দুর

6
suvendu adhikari
১০০ দিনের কাজের টাকা মারা চোর তৃণমূল, শাসক দলকে কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর।

মহানগর ডেস্ক: শিয়রে পুরভোট। আজ পুরভোটের শেষ প্রচার। যত এগিয়ে আসছে পুরভোটের দিন, ততই রাজ্যে বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তাপ। বুধবার স্বাধীনতা সংগ্রামীর সতীশ সামন্ত জন্মদিনে পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদলের শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। সেই সভায় উপস্থিত ছিলেন বিধানসভা হলদিয়ার বিজেপি বিধায়ক তাপসী মন্ডল সহ বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতৃত্ব। সেখান থেকেই ফের একবার তৃণমূলকে এক হাত নিলেন বিরোধী দলনেতা।

তিনি জানান, তিনি সাংসদ থাকাকালীন ৭ শতাংশ কমিশন নিয়েছে তৃণমূল। তারপর আঙুল তোলেন তৃণমূল বিধায়কের দিকে। মহিষাদলের বিধায়ক তিলক চক্রবর্তীর উদ্দেশ্যে তিনি কটাক্ষ করে বলেন, ১০০ দিনের টাকা মারা চোর। যদিও তাঁকে পাল্টা কটাক্ষ করতে কোনও ভাবেই পিছপা হয়নি তৃণমূল। এই প্রসঙ্গে তৃণমূল বিধায়ক জানান, একশ দিনের টাকা মারার চোর প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার টাকা মারা চোরগুলোর নামের তালিকা পঞ্চায়েত ভোটের পূর্বেই প্রকাশ করব।

সভামঞ্চে থেকে বিরোধী দলনেতা আরও যোগ করেন, গার্লস কলেজ, রাজ কলেজের ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা বেতনের কোটা, ঘরে ঘরে থেকে একটা প্রাইমারি চাকরি সবেতেই দুর্নীতি হয়েছে। আর তার সভা থেকে সেসব যাতে শুনতে না হয় তার জন্য বিজেপির সভা মাইকের তার কেটে দিয়েছে তৃণমূলের অনুগামীরা। পাশাপাশি বিরোধী দলনেতা আরও জানিয়েছেন, আমার এমপি কোটা থেকেও ৭ শতাংশ কমিশন নিয়েছে ওরা। প্রসঙ্গত, বুধবার সভা চলাকালীন মহিষাদলের রথ তলার দিকে মুখ করে থাকা মাইকের তার কেটে দেওয়ার অভিযোগ তোলেন শুভেন্দু অধিকারী।

সভা শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি জানান, বাংলার পুলিশ কাজ করছে না। তোলা তোলা এবং পিসির সেবা করা নিয়ে তারা এতটাই ব্যস্ত। বাংলার পুলিশ দলদাস পুলিশ। সিঙ্গুর আন্দোলনের চিটফান্ড নেতাদের কথা পাঠ্যপুস্তক পাবেন। শুধু পাবেন না স্বাধীনতার জন্য লড়াই করা বীর ও বীরাঙ্গনাদের নাম। একইসঙ্গে তিনি বলেন, উত্তর প্রদেশ ভোটের পর আমাদের পেছনে ঘুরতে হবে বর্তমান শাসক দলকে।