কংগ্রেস নেতা ভিড়লেন তৃণমূলে, আরব সাগর তটে ফুটল ঘাসফুল

5

নিজস্ব প্রতিনিধিত্রিপুরার আগেই গোয়ায় ঘাসফুল ফোটাল তৃণমূল! মাস দুয়েক আগে ত্রিপুরা অভিযান শুরু হলেও, এখনও সেখানকার বড় কোনও নেতা তৃণমূলে যোগ দেননি। গোয়ায় দিলেন। আরব সাগরতটের ছোট্ট এই রাজ্যের দু বারের মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেসের লুইজিনহো ফ্যালেইরো হাতে তুলে নিলেন ঘাসফুল আঁকা ঝান্ডা। তাঁর সঙ্গে জোড়াফুল শিবিরে নাম লেখালেন সে রাজ্যের আরও কয়েকজন নেতা।

চলতি বছরের বিধানসভা নির্বাচনে চোখ ধাঁধানো সাফল্য পায় তৃণমূল। এর পরেই তামাম ভারতে সংগঠন বিস্তারের দায়িত্ব দেওয়া হয় তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে। গুয়াহাটি থেকে গোয়া সর্বত্র তিনি তৃণমূলের ঝান্ডা ওড়াতে মরিয়া। সূত্রের খবর, সম্প্রতি নবান্নে গিয়ে মমতা ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করেন ইলেকশন স্পেশালিস্ট প্রশান্ত কিশোর ওরফে পিকে। সেখানেই মেঘালয়-ত্রিপুরা-অসম-মণিপুরের পাশাপাশি গোয়ায়ও সংগঠন বিস্তারের পরিকল্পনা ছকা হয়। সেই মতো গোয়ায় গিয়ে সমীক্ষা করতে শুরু করে পিকে-র টিম আইপ্যাক।

পেশাদারি ওই সংস্থার তরফে সবুজ সংকেত পেয়েই গোয়া উড়ে যান তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ওব্রায়েন এবং প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে তাঁরা লুইজনহোর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তারই ফলশ্রুতি হিসেবে এদিন তৃণমূলে যোগ দেন এই কংগ্রেস নেতা। লুইজনহো তৃণমূলে নাম লেখানোয় ছোট্ট ওই রাজ্যে কংগ্রেস জোর ধাক্কা খেল বলেই ধারণা পর্যবেক্ষকদের।