বিলে সই করছেন না রাজ্যপাল, প্রতিবাদে বিধানসভায় ধর্না তৃণমূল বিধায়কদের

32
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিলে সই করছেন না রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। যার জেরে রাজ্যসরকার বনাম রাজ্যপাল দ্বন্দ্ব তুমুল আকার ধারন করেছে বঙ্গে। ফলস্বরূপ রাজ্যপালকে বিপাকে ফেলে এবার বিধানসভা চত্বরে প্রতিবাদ শুরু করলেন শাসকদলের বিধায়করা। মঙ্গলবার বিধানসভা কক্ষের বাইরে আম্বেদকর মুর্তির পাদদেশে চলল ধর্না।

শাসকদলের বিধায়কদের অভিযোগ বিধানসভায় বিল পাশ হওয়ার পরও একাধিক বিলে সাক্ষর না করে রাজভবনে ফেলে রেখেছেন রাজ্যপাল। এর মধ্যে রয়েছে তপসিলি জাতি ও উপজাতি সংক্রান্ত একটি বিল। যার জেরেই এদিন বিধানসভায় ধর্নায় বসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শাসকদল। যদিও রাজভবনের তরফে আগেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যপাল কোনও বিল ফেলে রাখেননি। বিলগুলিকে যাতে দ্রুততার সঙ্গে পাশ করানো যায় তার জন্য যে দফতরের বিল সেই দফতরের কাছে বেশ কিছু নথি চাওয়া হয়েছিল। তারা তথ্য দিতে দেরি করার জন্যই সমস্যা হচ্ছে।

এদিকে এই সংঘাতের জন্য কিছুদিন আগে বেনজির ঘটনা ঘটে বিধানসভা ভবনে। গত ৩ ডিসেম্বর বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দেন। রাজ্যপাল বিল সাক্ষর না করার জন্য আগামী ৪ ও ৫ ডিসেম্বর বিধানসভা অধিবেশন স্থগিত থাকবে। পরিস্থিতির জেরে ৫ ডিসেম্বর বিধানসভা আসার সিদ্ধান্ত নেন রাজ্যপাল। তবে অধ্যক্ষের তরফে আগেই জানিয়ে দেওয়া হওয় ওই দিন তিনি থাকবেন না।

তবে সেসবকে গুরুত্ব না দিয়ে ৫ ডিসেম্বর সটান বিধাসভায় আসেন জগদীপ ধনকড়। নজিরবিহীনভাবে বিধাসভার ভিআইপি গেট তখন বন্ধ থাকে। যার ফলে ক্ষুব্ধ হন ধনকড়। প্রায় ১৫ মিনিট সেখানে অপেক্ষা করার পর অন্য সাধারণ গেট দিয়ে বিধাসভা ঢোকেন তিনি। ভিতরে ঢুকেও জ্বলে ওঠেন রাজ্যপাল। বলেন, অধিবেশন স্থগিত থাকলেও বিধানসভার সচিবালয় চালু থাকার কথা। সেটাও বন্ধ ছিল। তবে রাজ্য ও রাজ্যপাল সংঘর্ষ যে এখনই মেটার নয় তা স্পষ্ট হল এদিন ফের বিধানসভায় ধনকড়ের বিরুদ্ধে শাসকদলের প্রতিবাদ কর্মসূচিতে।