শুভেন্দুর দেখানো পথেই তাঁকে রোখার ছক কষছে তৃণমূল!

12

নিজস্ব প্রতিনিধি: শুভেন্দুর দেখানো পথেই তাঁকে রোখার ছক কষছে তৃণমূল! অন্তত এমনই জল্পনা ছড়িয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দীগ্রামে। জল্পনার কারণ অখিল গিরির পুত্র সুপ্রকাশের একটি উক্তি। তিনি বলেন, নন্দীগ্রামের মানুষ পুরানো ধাঁচে শুভেন্দু অধিকারির পরিকল্পনা রুখে দেবে।

জমি আন্দোলনকে ঘিরে উত্তাল হয়ে উঠেছিল সিঙ্গুর-নন্দীগ্রাম। বাম জমানায় নন্দীগ্রামের সেই আন্দোলন দমন করতে গুলি চালাতে হয়েছিল পুলিশকে। মৃত্যু হয়েছিল ১৩ জন বিক্ষোভকারীর। এর পরেই আন্দোলন আরও তীব্র হয়ে ওঠে। এই আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারি। পরবর্তীকালে সেই শুভেন্দুই যোগ দেন বিজেপিতে। বর্তমানে তিনি রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। শুভেন্দু দলবদল করতেই নানা অভিযোগে তাঁর নাম জড়িয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। হাইকোর্টের পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্ট থেকেও রক্ষাকবচ পেয়ে যান এই তরুণ তুর্কি বিজেপি নেতা।
এদিন শুভেন্দুকে বাংলার মিরজাফর বলে কটাক্ষ করেন শুভেন্দুর বিরোধী বলে পরিচিত রাজ্যের মৎস্যমন্ত্রী অখিল গিরির পুত্র সুপ্রকাশ।তিনি বলেন, বাংলার মাটিকে কলুষিত করেছে বিজেপি। শুভেন্দুকে মিরজাফর আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, বারবার মিথ্যা মামলা করে জমি আন্দোলনের নেতা ও নন্দীগ্রামের তৃণমূল কর্মীদের সিবিআইয়ের ভয় দেখাচ্ছেন। তিনি বলেন, নন্দীগ্রামে অশান্তি তৈরি করতে চাইছেন শুভেন্দু। কিন্তু সেখানকার মানুষ ধাঁচে শুভেন্দু অধিকারির পরিকল্পনা রুখে দেবে। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, শুভেন্দুকে ছাড় নন্দীগ্রামের আন্দোলন গড়ে উঠত না। কেবল পূর্ব মেদিনীপুর নয়, জঙ্গলমহলের বিস্তীর্ণ এলাকায়ও সিপিএমকে ধরাশায়ী করতে তৃণমূলকে লিড করেছিলেন শুভেন্দু।