১০০ দিনের কাজকে কেন্দ্র করে প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

12

নিজস্ব প্রতিনিধি: ১০০ দিনের কাজকে কেন্দ্র করে প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে হস্তক্ষেপ করতে হল পুলিশকে। কোচবিহারের নাটাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের আন্দরান ফুলবাড়ি ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘটনা।

শুক্রবার আন্দরান ফুলবাড়ি ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের ছালাপাক এলাকায় একশো দিনের প্রকল্পে হচ্ছিল মাটি কাটার কাজ। হঠাৎই হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে দু পক্ষ। খবর পেয়ে দ্রুত এলাকায় যায় পুলিশ। তার পরেই নিয়ন্ত্রণে আসে পরিস্থিতি।

স্থানীয় সূত্রে খবর, এলাকার রাশ কার হাতে থাকবে তা নিয়ে দীর্ঘদিনের ঠান্ডা লড়াই জারি রয়েছে তৃণমূল নেতা পার্থপ্রতীম রায় ও প্রাক্তন মন্ত্রী তৃণমূলেরই রবীন্দ্রনাথ ঘোষ গোষ্ঠীর। দুই গোষ্ঠীরই দাবি, এক গোষ্ঠী কাজ করতে দিচ্ছে না অপর গোষ্ঠীকে। তৃণমূলের একটি সূত্রের খবর, সম্প্রতি ৮ থেকে ৫০ নম্বর বুথের সভাপতি ময়ান আলিকে সরিয়ে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে খড়্গ বর্মণকে। কোচবিহার জেলা পরিষদের সভাপতি পঙ্কজ ঘোষের উপস্থিতিতে এ বিষয়ে সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়। পরে তুফানগঞ্জ ১ (এ) ব্লক সভাপতি জগদীশ বর্মণ তাকে অবৈধ ঘোষণা করে ফের দায়িত্ব দেন ময়ানকে। বুথ সভাপতি পরিবর্তনকে কেন্দ্র করেই অশান্তি চলছিল এলাকায়। তার জেরেই একশো দিনের কাজকে কেন্দ্র করে উত্তেজনার সূত্রপাত বলে স্থানীয় সূত্রের খবর।

দু পক্ষই থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগ পেয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।