সেক্স টয় কিনতে গিয়ে প্রতারনার জালে অবসর প্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক, ধৃত ড্যান্সবার মালিক

7

নিজস্ব প্রতিনিধি: সেক্স টয় কিনতে গিয়ে প্রতারনার জালে অবসর প্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক। অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার ড্যান্স বার মালিক। চাঞ্চল্য জলপাইগুড়ির রাজগঞ্জে।

রাজগঞ্জ থানার বেলাকপবা এলাকায় বাস অবসরপ্রাপ্ত এক শিক্ষকের। পরিচিত একজনের মারফত তিনি জানতে পারেন স্থানীয় এক ডান্সবার মালিক সেক্সটয় বিক্রি করেন। বিশেষ বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন ওই টয় কিনতে ওই শিক্ষক দফায় দফায় ওই ডান্সবার মালিককে ৩৭ লক্ষ টাকা দেন বলে অভিযোগ। প্রথম প্রথম অল্প অল্প টাকা নেওয়া হলেও, পরে ব্ল্যাকমেইল করে হাতিয়ে নেওয়া হয় মোটা অংকের টাকা। সব মিলিয়ে টাকার পরিমাণ ৩৭ লক্ষ। তার পরেও পুতুল না পেয়ে শেষমেশ পুলিশের দ্বারস্থ হন প্রতারিত শিক্ষক। গ্রেফতার করা হয় ডান্সবারের মালিক পবন দাসকে। তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে, দাবি পবনের।

ইদানিং গোপনে চলছে সেক্সটয়ের কারবার। খেলনা পুতুল কিনতে গিয়ে সর্বস্বান্ত হচ্ছেন অনেকেই। তবে সব খবর প্রকাশ্যে আসে না। লোকলজ্জার ভয়ে প্রতারিতেরা মুখে কুলুপ এঁটেই থাকেন। তবে মুখ খুলে প্রতারককে ধরিয়ে দিলেন অবসরপ্রাপ্ত ওই শিক্ষক। এখন দেখার, এই চক্রের নাগাল মেলে কিনা!