শুধু ধামসা-মাদল নয়, মাতৃভাষায় শিক্ষা চেয়ে জেলাশাসকের দফতরে আদিবাসীরা

12
kolkata news

Highlights

  • জঙ্গলমহলের আদিবাসীরা নিজেদের পুরনো দাবিতেই অনড়
  • তাদের বক্তব্য, ধামসা-মাদল চাই না, মাতৃভাষায় শিক্ষাদানের ব্যবস্থা করুক সরকার
  • এই দাবিতে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাশাসকের দফতরে দিনভর বিক্ষোভ দেখালেন আদিবাসীরা


নিজস্ব প্রতিনিধি, মেদিনীপুর:
পরিষেবা বিলি যতই হোক না কেন, জঙ্গলমহলের আদিবাসীরা নিজেদের পুরনো দাবিতেই অনড়। তাদের সরাসরি বক্তব্য, ধামসা-মাদল চাই না, মাতৃভাষায় শিক্ষাদানের ব্যবস্থা করুক সরকার। আদিবাসীদের জন্য জঙ্গলমহলে সাঁওতালি ভাষায় পঠন-পাঠনের পর্যাপ্ত পরিকাঠামো গড়ে তোলার দাবি করলেন তাঁরা। সোমবার ফের এই দাবিতে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাশাসকের দফতরে দিনভর বিক্ষোভ দেখালেন আদিবাসীদের সংগঠন ‘ভারত জাকাত মাঝি পারগানা মহল’-এর পূর্ব-পশ্চিম ঝাড়গ্রাম জেলার সদস্যরা।

সোমবার দুপুরে কয়েক হাজার আদিবাসী পুরুষ ও মহিলা মেদিনীপুর শহরে জেলাশাসকের দফতরের সামনে হাজির হন। যাদের প্রত্যেকের হাতেই ছিল পোস্টার ও প্ল্যাকার্ড। যার কোনটাতে লেখা ছিল, ‘ধামসা মাদল চাই না, মাতৃভাষায় শিক্ষাদানের ব্যবস্থা করুন’। কোথাও লেখা রয়েছে, ‘আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকায় সাঁওতালি ভাষায় পঠন-পাঠনের পর্যাপ্ত পরিকাঠামো দিন’। এছাড়াও সাঁওতালি ভাষাতেও বিভিন্ন দাবি করা হয়েছে তাদের পোস্টার, প্ল্যাকার্ডে৷ এই সমস্ত দাবি নিয়ে আদিবাসীরা জেলাশাসকের দফতরের সামনে বিক্ষোভ দেখান৷

সংগঠনের নেতারা জানান, আমরা দীর্ঘদিন ধরে প্রশাসন, শিক্ষা দফতরের কাছে সাঁওতালি ভাষাতে পর্যাপ্ত পরিকাঠামোর দাবি করে আসছি৷ তাতে খুব একটা পরিবর্তন হয়নি৷ বর্তমানে নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হতে চলেছে৷ এই মুহূর্তে সেই দাবিগুলি পুনরায় উত্থাপন করে জানাতে চাই, আমাদের ধামসা-মাদল বিলি বন্টন অনেক হয়েছে, এবার মাতৃভাষায় শিক্ষার পর্যাপ্ত পরিকাঠামো দিন৷ নিজেদের এই দাবি সম্বলিত দাবিপত্র এদিন জেলা শাসকের দফতরেও দিয়েছেন তাঁরা৷