গোয়ায় প্রথম দফার প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল তৃণমূল, ঘোষিত হল রাজ্য, যুব এবং মহিলা কমিটিও

10

মহানগর ডেস্ক: দেশের পাঁচ রাজ্যে বেজে গিয়েছে ভোটের দামামা। আর এই পাঁচ রাজ্যের তালিকায় রয়েছে ভারতের উপকূলীয় রাজ্য গোয়ার নামও। এই আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে পাথেয় করেই নিজেদের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে মরিয়া রাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলো। তারওপর এই প্রথমবার আরবসাগর তীরবর্তী এই রাজ্যের ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল। আর প্রথমবারেই রীতিমত কোমর বেঁধে ময়দানে নেমেছে তৃণমূল।

মঙ্গলবার প্রথম দফায় মোট ১১ জনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে ঘাসফুল শিবির। আর প্রথম দফার এই প্রার্থী তালিকায় নাম রয়েছে রাজ্যের দুই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর। লুইজিনহো ফেলেইরো প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছেন ফতোর্দা বিধানসভা কেন্দ্র থেকে এবং চার্চিল আলেমাও লড়বেন বেনৌলিম কেন্দ্র থেকে। অন্যদিকে প্রাক্তন এনসিপি নেতার কন্যা ভালঙ্কা আলেমাওকেও দেওয়া হয়েছে ভোটে লড়ার টিকিট। তিনি নাভেলিম থেকে লড়তে চলেছেন। প্রাক্তন বিজেপি বিধায়ক এবং গোয়া ফরওয়ার্ড পার্টির প্রাক্তন কার্যকরী সভাপতি কিরণ কান্দোলকরকে উত্তর গোয়ার আলডোনা বিধানসভা কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হিসাবে মনোনীত করেছে জোড়াফুল শিবির।

এছাড়াও মঙ্গলবারই ৬৯ জন সদস্য বিশিষ্ট একটি রাজ্য কমিটিও গঠন করা হয়েছে। আর্ভসেই কমিটিতে অভিনেত্রী এবং সদ্য তৃণমূলে নাম লেখানো নাফিসা আলী সহ নয়জন সহ- সভাপতি এবং ১২ জন সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল। এরপর প্রকাশ করা হয় ঘাসফুল শিবিরের ১১ জন সদস্য বিশিষ্ট যুব ও ১৩ জন সদস্য বিশিষ্ট মহিলা কমিটির তালিকাও।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বর্তমানে গোয়ায় রয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সহ প্রখ্যাত ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরও। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে দলের স্ট্র্যাটেজি নির্ধারণের বিষয় নিয়ে এদিন দীর্ঘক্ষণ বৈঠক হয় দলের শীর্ষ নেতৃত্বের। সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে বুধবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতেই দ্বিতীয় দফার প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতে আর বাংলার শাসক দল।