Twin Mystery Of Nigeria : পাঁচ যমজ সন্তান, আরও যমজে আপত্তি নেই আয়োপোর!

73
tween mystery of nigeria
পাঁচ সন্তানের বাবা, আরও যমজ সন্তান হলে আপত্তি নেই বাবার!

মহানগর ডেস্ক: পাঁচজন করে যমজ সন্তান (Tween Child)। মা ছেড়ে চলে গিয়েছে। বাবাই তাদের মানুষ করছেন। তিনিই মা, তিনিই বাবা। তাদের তিনি মানুষ করছেন যত্ন করে। পশ্চিম নাইজেরিয়ার ( West Nigeria)আডো ওডোয় যমজদের বাবা আয়োপো ওগুনলেয়ে এখন রীতিমতো সেলিব্রেটি (Celebriti) । অন্তত স্থানীয়রা তাঁকে সেলিব্রেটির চোখেই দেখে। কারণ কার ঘরে এমন পাঁচটা করে যমজ সন্তান রয়েছে। আয়োপোর স্ত্রী তাঁদের ছেড়ে চলে গেছেন কারণ বছর বছর যমজ সন্তান দেওয়ায় শ্বশুর-শাশুড়ির মুখ ঝামটা শুনতে হতো। তারপরই স্বামীর ঘর ছেড়ে চলে যান স্ত্রী, পাঁচজন যমজ সন্তানকে রেখে।

আয়োপোর বয়স এখন চল্লিশ। স্ত্রী নেই, নিজেই একা একা সন্তানদের খাওয়াদাওয়া থেকে ভালোমন্দ সব তাঁকেই দেখতে হয়। সন্তানদের তো তিনি আর ফেলে দিতে পারেন না। তবে একটাই দুঃখ,প্রথম যমজ সন্তান মারা গিয়েছে। শেষ যমজ সন্তানও আর নেই। তাই মাঝেমাঝে খুব দুঃখ হয় তাদের জন্য। পাঁচ যমজের বাবা জানিয়েছেন, স্ত্রী যখন প্রথম গর্ভবতী হয়, তখন যমজ সন্তানের আশা করেননি। স্ত্রীকে সন্তান প্রসবের জন্য হাসপাতালে পাঠানোর পর প্রহর গুণছিলেন কখন প্রথম সন্তান পৃথিবীর আলো দেখবে। হাসপাতাল থেকে ফোন আসার পর একটু চমকে গিয়েছিলেন।

তারপর হাসপাতালে গিয়ে শুনতে পেলেন তাঁর স্ত্রী সন্তানের জন্ম দিয়েছেন,তখন বাবা হিসেবে আনন্দ হয়েছিল বৈকি। নার্সদের জিজ্ঞেস করলেন ছেলে না মেয়ে হয়েছে। কিন্তু যখন শুনলেন তাঁর স্ত্রী যমজ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন, তখনও খারাপ লাগেনি। এ যেন স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতো ব্যাপার। আয়োপো জানালেন, ছোট থেকে তিনি প্রার্থনা করতেন যেন তাঁর স্ত্রীর কোল আলো করে সন্তান আসবে। এলও তাই। ঈশ্বরকে তিনি ধন্যবাদ জানানোর পর স্ত্রীকে জড়িয়ে ধরেছিলেন। তাঁকে অভিন্দন জানিয়েছিলেন। নাইজেরিয়ার ইওরোবা সম্প্রদায়ের যমজ সন্তান হওয়ার একটা ব্যাপার আছে।

পৃথিবীতে এই সম্প্রদায়ের মধ্যেই যমজ সন্তান হওয়ার ঘটনা বেশি। আয়োপোর কথায়, যতবারই তাঁর স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হতেন, তারপরই যমজ সন্তানের জন্ম দিতেন। দ্বিতীয়বারও যমজ, তৃতীয়বারও তাই, পাঁচবার সন্তানের জন্ম দিতে গিয়েও সেই যমজ। যমজদের এখানে স্থানীয় ভাষায় ইবেজি বলা হয়। এতবার যমজ সন্তান হওয়ার ব্যাপারটা তাঁর কাছেও ধাঁধার মতোই। আয়োপো জানিয়েছেন তিনি বিশেষ ধরণের খাবার খান না। তবে এতগুলো যমজ সন্তানদের ভরণপোষণের জন্য টাকাপয়সা বা শারীরিক অসুবিধে থাকলেও আরও যমজ সন্তান হলে কোনও ক্ষতি নেই বলে জানিয়েছেন পাঁচ যমজ সন্তানের বাবা। আবার বিয়ে করারও ইচ্ছে আছে। বিয়ে করলে কে আটকাচ্ছে। আর সন্তান তো ঈশ্বরের আশীর্বাদ।