রিয়্যালিটি শো’র মঞ্চে লতা মঙ্গেশকরের স্মৃতিচারণায় উদিত নারায়ণ

57

মহানগর ডেস্ক: মারা গিয়েছেন এক মাস হতে চলল। কিন্তু আজও সকলের মনের মনিকোঠায় তিনি রয়ে গিয়েছেন। তাঁর মারা যাওয়া অনেকের কাছে এখনও বিশ্বাসযোগ্য নয়। সেই সুরসম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকরকে মনে করে, ভারাক্রান্ত হলেন সঙ্গীত জগতের জনপ্রিয় গায়ক উদিত নারায়ণ।

অনুরাগীদের কাছে তিনি আজও বেঁচে আছেন গান দিয়ে। কিন্তু তাও সকলেরই মন মানতে চায় না যে, তিনি আর নেই। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিদেশেও তাঁর অনুরাগী কম নয়। এদিন একটি রিয়্যালিটি শো’র মঞ্চে প্রিয় লতাজি’কে মনে করেছেন জনপ্রিয় গায়ক উদিত নারায়ণ এদিন সকলের প্রিয় গায়িকার সঙ্গে নিজের কাজ করার স্মৃতি ভাগ করে নিয়েছেন গায়ক। বলেন, ‘আমি নিজেকে ধন্য মনে করি যে লতা দিদির সঙ্গে ২০০’র বেশি গানে ডুয়েট গাওয়ার সুযোগ হয়েছে আমার। বেশকিছু স্টেজ শোয়ে তাঁর সঙ্গে গাইতে পেরেছি। আমার মনে আছে আর চিরকাল মনে থাকবে’।

এদিন তিনি বলেন, ‘একবার কনসার্টে লতাজি সঞ্চালককে অনুরোধ জানিয়েছিলেন যে তিনি যেন আমাকে প্লেব্যাক সিঙ্গিংয়ের রাজা বলে সম্বোধন করেন। সেই দিন আমি কখনোই ভুলতে পারব না। আমি কোনও না কোনও ভাল কাজ নিশ্চয়ই করেছিলাম, যার ফলস্বরুপ এগুলো পেয়েছি’।

তিনি চলে গিয়েছেন, একমাস হয়ে গেলেও, তাঁকে আজও মনে রেখেছে গোটা দেশবাসী। মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর কথা মনে করে নানান ব্যক্তিত্বরা নিজেদের অনুভূতি শেয়ার করেন। যেদিন খবর মেলে, তিনি চলে গিয়েছেন, সুরের দুনিয়া হারিয়েছিল তাদের রানীকে। অনেক নামে তাঁর নামকরণ হয়েছে। সুরের দুনিয়ায় কেউ তাঁকে কোকিলকণ্ঠী, তো কেউ নাইটেঙ্গেল বলে সম্বোধন করেছেন। আজ সেই ব্যক্তিত্বের চলে যাওয়ার এক মাস পরও, তাঁকে স্মৃতিচারণ করলেন সঙ্গীত দুনিয়ার এই জনপ্রিয় গায়ক। কিংবদন্তী শিল্পীর সঙ্গে নিজের ক্যারিয়ারে প্রচুর গান গেয়েছেন। সেই জন্য নিজেকে ধন্য মনে করেন উদিত নারায়ণ। দীর্ঘ এক মাস অসুস্থ হয়ে হাসপাতলে ভর্তি থাকার পর আচমকাই সরস্বতী পূজার পরের দিন তাঁর মারা যাওয়ার খবর মেলে। ৯২ বছর বয়সে চলে গিয়েছেন লতা মঙ্গেশকর।