একই সঙ্গে ২৫টি স্কুলে শিক্ষকতা করে আয় বছরে এক কোটি! শিক্ষিকার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

9
national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: একই সঙ্গে ২৫টি স্কুলে শিক্ষকতা করে বছরে এক কোটি টাকা আয় করার অভিযোগ উঠল এক শিক্ষিকার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে। ওই শিক্ষিকা রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের অন্তর্ভুক্ত কস্তুর্বা গান্ধী বালিকা বিদ্যালয়ে পড়াতেন। কিন্তু সম্প্রতি জানা যায় তিনি আরও ২৪টি স্কুলেও শিক্ষিকা হিসেবে নিযুক্ত। ইতিমধ্যেই ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে।

প্রাথমিক শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর, বর্তমানে রাজ্যে শিক্ষকদের ডিজিটাল ডাটাবেস তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। সেখানেই দেখা যায় অনামিকা শুক্লা নামে ওই শিক্ষিকা একাধিক স্কুলের সঙ্গে যুক্ত। কস্তুর্বা গান্ধী বালিকা বিদ্যালয়ের পূর্ণ সময়ের শিক্ষিকা হওয়া সত্ত্বেও আমেঠি, আম্বেদনগর, প্রয়াগরাজ, আলীগড় সহ একাধিক জেলার স্কুলেও পড়াতেন তিনি।

জানা গিয়েছে, এই বছরের ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত শেষ ১৩ মাসে তিনি প্রায় এক কোটি টাকা উপার্জন করেছেন। ইতিমধ্যেই প্রাথমিক শিক্ষা দফতর থেকে তাকে নোটিস পাঠানো হয়েছে, কিন্তু সেই নোটিসের কোনও উত্তর মেলেনি। ঘটনা সামনে আসার পরই তার মাইনে আটকে দেওয়া হয়েছে। ২৫টি স্কুলের বেতন তিনি কি একটা একাউন্ট থেকেই তিনি তুলতেন, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এই প্রসঙ্গে, উত্তরপ্রদেশের প্রাথমিক শিক্ষা মন্ত্রী ডঃ সতীশ দিবেদী জানান, ‘ইতিমধ্যেই ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে আইনি তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযোগ সত্যি হলে উনি উপযুক্ত শাস্তি পাবেন। শিক্ষাক্ষেত্রে স্বচ্ছতা আনার জন্যই এই ডিজিটাল ডাটাবেস তৈরি করা হচ্ছে।’