চিন, উত্তর কোরিয়া, বাংলাদেশ সহ বিভিন্ন দেশের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র! শুরু প্রবল বিতর্ক

51

মহানগর ডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চিনের মধ্যে ঠাণ্ডা লড়াই উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। জো বাইডেনের নেতৃত্বাধীন আমেরিকা চিন, মায়ানমার, উত্তর কোরিয়া ও বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কিত একাধিক ব্যক্তি ও সম্পত্তির উপর নিষেধাজ্ঞা (sanctions) জারি করল।

মানবাধিকার লঙ্ঘনের জেরে এই ব্যবস্থা গ্রহণ করল হোয়াইট হাউস। পাশাপাশি চিনের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (Artificial Intelligence) কোম্পানি ‘সেন্সটাইম গোষ্ঠী’কেও লগ্নি সংক্রান্ত কালো সূচিতে (Black List) রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, মায়ানমারের উপর কানাডা ও ব্রিটেনের পক্ষ থেকেও একাধিক নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। দিনকয়েক আগে মায়ানমারের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী (স্টেট কাউন্সিলর) অং সান সু চি কে ৪ বছরের জন্য কারাবাসে দণ্ডিত করেছে সেই দেশের আদালত।

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে স্বভাবতই সরব হয়েছে চিন। ওয়াশিংটনে অবস্থিত চিনা দূতাবাস কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। তাঁরা বলেছে, “মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্ত চিনের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার সামিল। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক কিছু নিয়ম-কানুন দ্বারা পরিচালিত হয়। আমেরিকা সেই নিয়মকানুনের বিরুদ্ধাচরণ করছে।”

জো বাইডেন প্রশাসনের সিদ্ধান্ত আমেরিকা-চিন সম্পর্কের পক্ষে ক্ষতিকারক বলেও মনে করে চিন। চিনা দূতাবাসের মুখপাত্র লিউ পেঙ্গ ইউ আমেরিকাকে এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে অনুরোধ করেন।

প্রসঙ্গত, দিনকয়েক আগে বেইজিং এ অনুষ্ঠিত হতে চলা শীতকালীন অলিম্পিক গেমসকে (২০২২ এর ফেব্রুয়ারি) কূটনৈতিক আঙ্গিকে বয়কট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। তখনও তৈরি হয় প্রবল বিতর্ক।