Lifestyle : দিনভর সুস্থ থাকতে চান ? ভরসা রাখুন সাইকেলে

66

মহানগর ডেস্ক : নিজেকে সুস্থ রাখতে প্রত্যেকদিন জিমে যাচ্ছেন ? ঘন্টার পর ঘন্টা ভারী ভারী ডাম্বল তুলে শরীরকে কষ্ট দিচ্ছেন?তাতে সুস্থর বদলে অসুস্থ হয়ে পড়ছে না তো? ঘন্টার পর ঘন্টা দিনে শরীরকে কষ্ট না দিয়ে কারি কারি টাকা খরচ না করে এবার খুব সহজেই শরীরকে সুস্থ করে তুলুন।

আরও পড়ুন : কানাইয়ালালকে নিরাপত্তায় গাফিলতি,রাজস্থানে এসপি-সহ ৩২ আইপিএসের গণবদলি!

সারাদিনে মাত্র আধাঘন্টা থেকে এক ঘন্টা সাইকেল চালিয়েই সুস্থ রাখুন শরীরকে। কেবলমাত্র সাইকেল চালিয়েই শরীরকে সুস্থ রাখা যায় এমনটাই জানাচ্ছেন এক ফিটনেস কোচ। তবে এক্ষেত্রে একাধিক নিয়ম মেনে চলতে হবে অবশ্যই।

শরীরকে ফিট রাখতে গিয়ে সাইকেল চালানোর ক্ষেত্রে কি কি করনীয়

শরীরকে সুস্থ রাখতে সাইকেল আমাদের অনেক সাহায্য করে। নিয়মিত শরীর চর্চার পাশাপাশি সাইকেল চালালে আমাদের পায়ের পেশী মজবুত হয়। তবে মনে রাখতে হবে সাইকেল চালানোর ক্ষেত্রে মেনে চলতে হবে বেশ কিছু নিয়ম। কুঁজো হয়ে বসে কোন ভাবে চালানো যাবেনা সাইকেল। পিঠ সোজা করে ঘাড় সোজা করে বসে সাইকেল চালাতে হবে তবেই সুস্থ থাকবে শরীর।

শরীরকে সুস্থ রাখতে এবং মনকে সতেজ রাখতে দিনে অন্তত আধা ঘন্টা থেকে এক ঘন্টা সাইকেল চালাতে হবে।তবে অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে টানা এক ঘন্টা বা আধা ঘন্টা সাইকেল চালানো যাবে না। মাঝে মাঝে নিতে হবে বিরতি। সেই সময় সেরে নিতে হবে কিছু ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ।

দীর্ঘক্ষণ সাইকেল চালালে আমাদের হিপসের পেশী শক্ত হয়ে যায় মাঝে মাঝে বিরতি নিয়ে ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজের মাধ্যমে হিপসের পেসিকে আবারো সফট করে নিতে হবে। পাশাপাশি করতে হবে হাত-পা নাড়াচাড়া। এছাড়াও শরীরকে ফিট রাখতে ৩০ সেকেন্ড জোরে এবং ৩০ সেকেন্ড আস্তে সাইকেল চালাতে হবে।

এখনো পর্যন্ত গ্রামাঞ্চলের অনেক মানুষ সাইকেল চালিয়েই বিভিন্ন জায়গায় যাতায়াত করেন। কিন্তু সাধারণ মানুষকেও সাইকেল চালানোর ক্ষেত্রে বেশ কিছু দিকে নজর রাখতে হবে। যেমন কুঁজো হয়ে বসে সাইকেল না চালিয়ে সোজা হয়ে বসে সাইকেল চালাতে হবে সাধারন মানুষকেও।

বর্তমানে পরিস্থিতি শরীর একটু অসুস্থ হলেই সেই শরীরে বাসা বাঁধছে করোনার মতো মারণ ভাইরাস। তাই শরীরকে সুস্থ রাখতে অনেকেই নানান রকমের খাবার,ঔষধ এবং শরীরচর্চার ওপরেই বিশ্বাস রাখছেন ।এই সমস্ত কিছুর পাশাপাশি যদি ডেইলি রুটিনে সাইকেল চালানোর যোগ করা যায় তবে হয়তো আরো সহজ হবে শরীরকে সুস্থ রাখা। এমনটাই জানাচ্ছেন এক ফিটনেস কোচ।