‘প্রিয়ঙ্কা গান্ধীর কাছ থেকে ২ কোটি টাকার পেইন্টিং কিনতে বাধ্য করা হয়েছিল’, বিস্ফোরক অভিযোগ ইয়েস ব্যাঙ্কের সহ-প্রতিষ্ঠাতার

49

মহানগর ডেস্ক: এবার গান্ধী পরিবারের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ আনলেন ইয়েস ব্যাঙ্কের সহ – প্রতিষ্ঠাতা রানা কাপুর। এদিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটকে জানিয়েছেন যে কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়ঙ্কা গান্ধী ভাদ্রার কাছ থেকে এম এফ হোসেন পেইন্টিং ২ কোটি টাকা কিনতে তাঁকে বাধ্য করা হয়েছিল।

তিনি আরও জানান যে ওই অর্থ আমেরিকার নিউ ইয়র্কে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর চিকিৎসার ক্ষেত্রে খরচ করা হয়েছিল। এরপর তিনি বলেন যে তৎকালীন কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী মুরলী দেওরা তাঁকে বলেছিলেন যে এম এফ হোসেনের পেইন্টিং কিনতে অস্বীকৃতি তাঁকে কেবল গান্ধী পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তুলতেই বাধা দেবে না বরং তাঁকে পদ্মভূষণ সম্মান পেতেও বাধা প্রদান করবে।

এরপর তিনি জানান,’ মিলিন্দ দেওরা অর্থাৎ মুরলী দেওরার পুত্র পরে গোপনে আমাকে জানিয়েছিলেন, গান্ধী পরিবার ওই টাকা নিউ ইয়র্কে সোনিয়ার চিকিৎসায় খরচ করবে।’ এছাড়াও তিনি ইডিকে আরও জানান যে সোনিয়া গান্ধীর ঘনিষ্ঠ আহমেদ পটেলও তাঁকে বলেছিলেন যে যদি ছবিটি তিনি কেনেন তাহলে গান্ধী পরিবারের ঘনিষ্ঠ হওয়ার সুযোগ মিলবে। এর ফলে পদ্মভূষণ সম্মানের পথও সুগম হবে বলেও নাকি ইঙ্গিত করেছিলেন ওই কংগ্রেস নেতা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০২০ সাল থেকে অর্থ পাচার সংক্রান্ত মামলায় বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রয়েছে ইয়েস ব্যাঙ্কের সহ প্রতিষ্ঠাতা রানা কাপুর। আর এই মামলার চার্জশিটেই এই চাঞ্চল্যকর তথ্য জানিয়েছেন তিনি।