Home Featured Primary TET 2022: ১১ ডিসেম্বরে নতুন টেট, বদলে গেলো নিয়ম! বিজ্ঞপ্তি জারি রাজ্যের

Primary TET 2022: ১১ ডিসেম্বরে নতুন টেট, বদলে গেলো নিয়ম! বিজ্ঞপ্তি জারি রাজ্যের

by Silpika Chatterjee

মহানগর ডেস্ক: রাজ্য সরকার দীর্ঘ জল্পনার অবসান ঘটিয়ে একাধিক টানাপোড়েনের পর নতুন করে টেট পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি জারি করল। রাজ্যে প্রাথমিক পর্ষদ (WBBPE)- এর নতুন সভাপতি গৌতম পাল সোমবার জানিয়ে দেন, আগামী ১১ ডিসেম্বর রাজ্যে সংঘটিত হতে চলেছে প্রাইমারি টেট পরীক্ষা। মূলত এই খবরটি প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে মুখে হাসি ফুটেছে আন্দোলনকারী টেট উত্তীর্ণ শিক্ষাপ্রার্থীদের।

রাজ্যে এসএসসির পাশাপাশি প্রাথমিক টেস্ট নিয়ে দুর্নীতি প্রকাশ্যে এসেছে। একাধিকবার প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি মানিক ভট্টাচার্যকে সিবিআই তলব করা হয়। ঠিক তার পরই রাজ্যের তরফে তাঁকে এই পদ থেকে বহিস্কার করা হয়। এবার রাজ্যের নব নিযুক্ত প্রাইমারি বোর্ডের সভাপতি গৌতম পাল সাফ জানিয়ে দিয়েছেন এই টেট এর দিনক্ষণ।
এদিন সাংবাদিক বৈঠক থেকে তিনি টেট নিয়ে মূলত দুটি বিরাট সুখবর দিয়েছেন। প্রথমত, রাজ্যে আগামী ১১ ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে নতুন টেট। দ্বিতীয়ত, রাজ্যে প্রাইমারি টেট নিয়ে যে ১১ হাজার শূন্যপদ সৃষ্টি হয়েছে তার স্বচ্ছ নিয়োগ হবে। লক্ষ্মীপুজোর পর পরই ফর্ম ফিলাপ প্রক্রিয়া। নতুন টেটের ফর্ম ফিলাপের পোর্টাল চালুর পাশাপাশি চাকরি প্রার্থীদের জন্যও ফর্ম ফিলাপ করতে এক নতুন পোর্টাল চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন বোর্ড সভাপতি। তবে নিয়োগের শূন্যপদ প্রকাশ নিয়েও কয়েকটি প্রশ্ন উঠে আছে। এই নিয়োগ কি নতুন টেট উত্তীর্ণদের জন্য নাকি যারা ইতিমধ্যে টেট পাশ করে বসে আছেন তাদের জন্য। বিশেষত ২০১৪ ও ২০১৭ তে টেট পাশ করা চাকরি প্রার্থীরা, যারা সম্পূর্ণভাবে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত। পাশাপাশি তৈরী হয়েছে আরেকটি জল্পনা। সেটি হলো টেট এ আগা গোড়াই ছিল D.EL.ED দের অগ্রাধিকার। কিন্তু এবার থেকে B.ED পাঁচ প্রার্থীরা ও টেট দিতে পারবে। তবে নিয়োগের অফিসিয়াল নোটিফিকেশন পুজোর আগে বের হওয়া না অব্দি কিছু বলা যাচ্ছে না ভালো করে।

হাতেগোনা আর মাত্র কটা দিন। তারপরই বাঙালির সেরা উৎসবে মেতে উঠবে। যদিও তিলোত্তমা সহ বেশ কয়েকটি শহরতলীর রাস্তায় নেমে পড়েছে মানুষের ঢল। এমনিতেই খুশিতে আত্মহারা হয়ে রয়েছেন প্রত্যেকেই। তার মধ্যেই এই প্রাইমারি বোর্ড কর্তৃক ঘোষনায় কিছুটা হলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে টেট উত্তীর্ণ আন্দোলনকারী তথা প্রকৃত চাকরি প্রার্থীরা।

You may also like

Leave a Comment