সিএএ বিরোধিতা হবে, কিন্তু বনধ নয়, বামেদের বনধ ছুঁড়ে ফেলে দিলেন মমতা

4
CM bengali news

Highlights

  • মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ আগেই জানিয়েছিল বাম নেতৃত্ব
  • বামেদের হুঁশিয়ারিতে জল ঢেলে বনধের বিরুদ্ধে মমতা
  • আমরা কিন্তু বনধের সমর্থন করছি না

মহানগর ওয়েবডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ আগেই জানিয়েছিল বাম নেতৃত্ব৷ মুখ্যমন্ত্রীকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বামেদের তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, আসল বামপন্থী হলে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বাতিলের দাবিতে আগামী ৮ জানুয়ারি ধর্মঘট সফল করুন৷ মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে বামেদের হুঁশিয়ারিতে জল ঢেলে বনধের বিরুদ্ধে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার কাকদ্বীপে প্রশাসনিক বৈঠক থেকে বামেদের ডাকা বনধের বিরুদ্ধে পুলিশকে কড়া হওয়ার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রী৷ বনধের ইস্যুকে সমর্থন করলেও বনধকে কোনও ভাবেই সমর্থন করা যাবে না বলে ঘোষণা মমতার৷

প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা কিন্তু বনধের সমর্থন করছি না৷ কোন একটি রাজনৈতিক দল বনধ ডেকেছে৷ আমরা তাদের ইস্যুটাকে সমর্থন করছি৷ সেটা নিয়ে আমরা প্রত্যেকেই মিছিল-মিটিং করছি৷ যা যা করার, আমরা করছি৷ কিন্তু আমাদের অবস্থান, আমরা কোনও ববনধকে এই সমর্থন করি না৷ এটা আমাদের দিকেও না অন্যদিকেও না৷ কারণ দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা এমনিতেই ভেঙে পড়েছে৷ তার মধ্যে একটা দিন বন্ধ হলে লোকের সমস্যা হয়৷ কাজেই কোনওরকম বনধ যাতে না হয়, এলাকায় যাতে শান্তিপূর্ণ থাকে সেটা প্রশাসনকে ব্যবস্থা নিতে হবে৷ আমরা ওদের ইস্যুকে সমর্থন করি৷ কিন্তু অন্য পদ্ধতিতে, আমরা গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে শান্তিপূর্ণ পদ্ধতিতে আন্দোলন চালিয়ে যাব৷’’

মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, ‘‘কিন্তু আমি বনধ যাচ্ছি না৷ কারণ এমনিতেই অর্থনীতিতে ভারতের অবস্থান খুবই খারাপ৷ একটা দিন সব বন্ধ হয়ে যাওয়া মানে হাজার হাজার কোটি টাকার সম্পদ নষ্ট হয়৷ সুতরাং আমরা নতুন করে কোনও দিনই সমর্থন করি না আমাদের সরকার যেদিন থেকে এসেছে৷ এই সাড়ে আট বছর একটি বনধ আমরা সাপোর্ট করিনি৷ কাজেই আমাদের অবস্থান খুবই স্পষ্ট, বনধের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে পুলিশকে৷’’

মুখ্যমন্ত্রী যে বামেদের ডাকা বনধকে সমর্থন করবেন না, তা নিয়ে আগেই খোঁচা দিয়ে রেখেছিলেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র৷ ‘গণশক্তি’র প্রতিষ্ঠা দিবসের সূর্যকান্ত সাফ জানিয়ে দেন, ‘‘বর্তমান রাজ‍্য সরকার বলছে, ওরা নাকি আসল বামপন্থী৷ ওঁরা যদি আসল বামপন্থী হয়ে থাকে, তাহলে আমি আর বামপন্থী থাকব না৷ আর সরকার যদি বামপন্থী হয়ে থাকে, তাহলে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বাতিলের দাবিতে আগামী ৮ জানুয়ারি ধর্মঘট সমর্থন করুক৷’’

মিশ্রর আরও হুশিয়ারি, ‘‘আপনার সবচেয়ে বড় পরীক্ষা ৮ তারিখ৷ ওই দিন আপনার ভূমিকা কী হয়, আমরা দেখতে চাই৷ ধর্মঘট ভাঙার চেষ্টা হলে নাগরিক আইনের বিরুদ্ধে আপনার বিশ্বাসযোগ্যতা জানতে পারব৷ মুখ‍্যমন্ত্রী ৮ জানুয়ারি প্রমাণ দিতে হবে আপনি কোন পক্ষে!’’