Home Bengal “হিন্দু হওয়া বাংলায় অপরাধ” গঙ্গাসাগর যাওয়ার সময় ৩ সাধুর উপর শারীরিক ‘নির্যাতন’ নিয়ে সরব বিজেপি

“হিন্দু হওয়া বাংলায় অপরাধ” গঙ্গাসাগর যাওয়ার সময় ৩ সাধুর উপর শারীরিক ‘নির্যাতন’ নিয়ে সরব বিজেপি

by Shreya Maji
26 views

মহানগর ডেস্ক: মকর সংক্রান্তিতে গঙ্গাসাগরে যান পুণ্য লাভের আশায়। সকলের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি তীর্থক্ষেত্র। কিন্তু সেই গঙ্গাসাগর যাওয়ার পথেই শারীরিক ‘নির্যাতন’ হল তিন সাধুর ওপর। যা নিয়েই রাজনৈতিক মহলে ঝড় উঠেছে। বিজেপি ঘটনার জন্য শাসক দলকে নিশানা করেছে।  “হিন্দু হওয়া বাংলায় অপরাধ” এই বলেই বিজেপির নিশানায় মুখ্যমন্ত্রী মমতার বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে।

গঙ্গাসাগর যাওয়ার জন্য পুরুলিয়া জেলায় সাধুদের সমাবেশের মধ্যে   বেশ কয়েকজন সাধুকে  পোশাক খুলে গালাগালি করার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এই নিয়েই বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তাপ।  করেছে বলে জানা গেছে তখন একটি রাজনৈতিক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। ঘটনার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।  উত্তরপ্রদেশের তিন সাধুকে বৃহস্পতিবার পুরুলিয়ার কাশীপুরে ভিড়ের  মধ্যে পোশাক খুলে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ  উঠেছে। তাঁরা উত্তরপ্রদেশ থেকে শ্চিমবঙ্গের গঙ্গাসাগর মেলায় যাচ্ছিলেন বলেই উল্লেখ করা হয়েছে।   শুক্রবার এই ভিডিও সামনে এসেছে। ঘটনার তীব্র নিন্দা করে   বিজেপি  ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসকে নিশানা করেছে এবং   পালঘরের ঘটনার সঙ্গে তুলনা করেছে।

বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য তাঁর  অফিসিয়াল এক্স অ্যাকাউন্টে ভিডিওটি পোস্ট করেছেন এবং বলেছেন যে সাধুদের উপর হামলার পিছনে শাসক দল তৃণমূলের গুন্ডারা  জড়িত  ছিল। তিনি টুইট করে লিখেছেন, “পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়া থেকে একেবারে মর্মান্তিক ঘটনাটি রিপোর্ট করা হয়েছে। মকর সংক্রান্তির জন্য গঙ্গাসাগরে যাতায়াতকারী সাধুরা ক্ষমতাসীন তৃণমূলের সঙ্গে জড়িত অপরাধীদের শিকার হয়েছেন। তারাই  ছিনতাই এবং মারধর করেছে।” পশ্চিমবঙ্গে হিন্দু হওয়া একটি অপরাধ বলে দাবি করে তিনি  বলেছেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শাসনামলে শাহজাহান শেখের মতো একজন সন্ত্রাসী রাষ্ট্রীয় সুরক্ষা পায় এবং সাধুদের মারধর করা হয়।” বিজেপি সাংসদ জ্যোতির্ময় মাহাতো বলেন, “পশ্চিমবঙ্গে আবার পালঘরের মতো ছায়া দেখা দিয়েছে। বাংলায় সাধু সন্তদের তৃণমূল আশ্রীত গুন্ডারা মারধর করা শুরু করেছে। আর এদিকে শেখ শাহজাহানের মতো গুন্ডারা রাস্তায় ঘুরে বেড়ায়।” পশ্চিমবঙ্গে সাধুদের উপর কথিত হামলার বিষয়ে, শ্রী রাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্রের প্রধান পুরোহিত, আচার্য সত্যেন্দ্র দাস বলেছেন: …”কেউ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মুমতাজ খান নাম দিয়েছিল। রাম নবমী এবং অন্যান্য ধর্মীয় মিছিলে মিছিলে হামলা হয়েছে। তিনি (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) ‘গেরুয়া’ রঙ দেখে রেগে যান এবং এই কারণেই তিনি এই আক্রমণগুলি ঘটান… হামলার এই ঘটনাগুলি অত্যন্ত নিন্দনীয়।”

 করা হয়েছিল।” মালভিয়া জানিয়েছেন।

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved