Home Bengal তিন মাস কাজ নেই মানসী সিনহার! চলছে কিভাবে?

তিন মাস কাজ নেই মানসী সিনহার! চলছে কিভাবে?

“যিনি কাজ দেবেন তিনি যোগ্য মনে করেননি,” বিষ্ফোরক অভিনেত্রী।

by Sushama
50 views

মহানগর ডেস্ক: শিল্পর সাথেই রাজনীতির যোগ। বিষ্ফোরক মন্তব্য মানসী সিনহার। নির্বাচনের আগে অভিনয়শিল্পীদের কাজ ছিল বাধ্যতামূলক। শিল্পীদের রাজনৈতিক বোধ, কাজের পরিসর, দেব থেকে সৌরভ একাধিক বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী(Manasi Sinha)। ইন্ড্রাস্ট্রিতে আবারও করোনা পরবর্তী সময় আসতে চলেছে। কিছুদিনের অপেক্ষা। আসন্ন অর্থনৈতিক ভারসাম্য। দাবি ‘এটা আমাদের গল্প’ ছবির পরিচালক মানসী সিনহার।

সম্প্রতি এক ঘরোয়া সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানে বসেছিলেন প্রবীণ অভিনেত্রী। শেয়ার করেন নিজের সবাক মতামতের কথা। স্বাভাবিক জীবনযাপন থেকে বাঙালিয়ানা সবটাই উঠে এল খ্যাতনামা থিয়েটার শিল্পীর মুখে। সম্প্রতি অভিনেত্রী মানসী সিনহার বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ এনেছেন ‘এটা আমাদের গল্প’ ছবির সহ-প্রযোজক। এই নিয়ে হয়েছে বিস্তর জলঘোলা। প্রায় ২৬ লক্ষ টাকার আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ এনেছেন প্রযোজক দীপঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে অধিকাংশ শুটিং হয়ে গিয়েছে এই ছবির। অভিযোগ মানসী নাকি তাঁর কাছ থেকে ২৬ লক্ষ ২৮ হাজার টাকা নিয়ে আর ফেরত দেননি। তিনি আরো অভিযোগ করেছেন, শুটিং চলাকালীন যে হিসেব মানসী দেখিয়েছিলেন তা স্পষ্ট নয়। দীপঙ্কর বলেন, ছবিতে বাকি টাকা শর্মিষ্ঠার বিনিয়োগ করার কথা ছিল। কিন্তু তিনিও তাঁর অফিস বদলে ফেলায় বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে তাঁর কাছে। উপরন্তু সম্প্রতি মানসীর শেয়ার করা ছবির পোস্টারে সহ প্রযোজকের জায়গায় দীপঙ্করের নামের বদলে সুভাষ বেরা এবং শুভঙ্কর মিত্রের নাম থাকায় আরোই ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে।

 

ছবিতে অভিনয় করেছেন শ্বাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, অপরাজিতা আঢ্য, কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, খরাজ মুখোপাধ্যায়। এই ঘটনায় মানসীও কিন্তু দীপঙ্করের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগ তুলেছেন। প্রথমত মানসী বললেন, ‘‘ছবি শুরু হয় শর্মিষ্ঠার প্রযোজনায়। ওঁর বিনিয়োগকারী হিসেবে এসেছিলেন দীপঙ্কর। সহ-প্রযোজক হিসেবে দীপঙ্করের নাম রাখার সিদ্ধান্ত ছিল শর্মিষ্ঠার।’’ মানসী জানালেন, দীপঙ্কর এক সময় ছবির শুটিং পর্যন্ত বন্ধ করিয়ে দেন। তার পর আসে অতিমারি। মানসীর কথায়, ‘‘দীপঙ্কর জানায় টাকা খরচের হিসেব দিতে পারেনি শর্মিষ্ঠা। কিন্তু এখনও দীপঙ্করের মনে হচ্ছে আমি ওকে ঠকাচ্ছি! কেন জানি না। আমি তো পরিচালক মাত্র।’’ একই সঙ্গে দীপঙ্করের বিরুদ্ধে মানসী তাঁর স্বাক্ষর-সহ জাল নথি তৈরির অভিযোগও আনলেন। দীপঙ্কর ও শর্মিষ্ঠার মধ্যে কত টাকার লেনদেন হয়েছে তা সম্পর্কে কোনও তথ্য জানা নেই বলেই সংবাদমাধ্যমের ক্যমেরার সামনে জানালেন মানসী। অভিনেত্রী আরও বললেন, ‘‘সব থেকে বড় কথা, ওদের মধ্যে টাকা দেওয়া নিয়ে কাগজেকলমে কোনও চুক্তি হয়নি। সবটাই নাকি মৌখিক!’’ দীপঙ্করের অভিযোগ তিনি নাকি মানসীর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি। কিন্তু মানসীর কথায় দীপঙ্করের ফোন বন্ধ থাকে। চেনা-পরিচিত অনেকের মাধ্যমে যোগাযোগ করার চেষ্টা করি। কিন্তু পাইনি। ও আমার সঙ্গে যোগাযোগ করলেই আমি সমস্যা মিটিয়ে নিতে রাজি।’’

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved