কবে খোলা হবে ‘পাড়ায় শিক্ষালয়’? জানালেন ব্রাত্য বসু

10

মহানগর ডেস্ক: করোনার দাপটের কারণে প্রায় দু বছর হতে চলল রাজ্যের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ। ২০২১ সালের শেষের দিকে কিছুদিনের জন্য স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় আংশিকভাবে খুললেও করোনার তৃতীয় কামরের জন্য ফের বন্ধ করে দেওয়া হয়। আর তারপরেই ফের একবার পড়ুয়াদের ভবিষ্যৎ অনলাইনে শুরু হয়ে যায়। প্রশ্নের মুখে দাঁড়ায় স্কুলের পঠন পাঠন। এবার অনলাইনের জীবন থেকে বেরিয়ে নতুন করে ভাবনা শুরু করেছে শিক্ষাদপ্তর। ‘পাড়ায় শিক্ষালয়’। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে পাড়ায় পাড়ায় শিক্ষালয়ের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানানো হয়েছিল।

জানা গেছে, আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে রাজ্য সরকার পাড়ায় শিক্ষালয় কর্মসূচি শুরু করছে। ‘পাড়ায় শিক্ষালয়’ কথাটি নামকরণ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মূলত শিশুদের সামাজিক সুরক্ষা, স্বাস্থ্য, পড়া ও লেখার দক্ষতা বৃদ্ধি এবং সাংস্কৃতিক বিভিন্ন কর্মসূচির ওপর জোর দেওয়া হচ্ছে। আপাতত রাজ্যের ৫০,১৬৯ টি প্রাথমিক স্কুলে ১৫ হাজারের বেশি শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের প্রকল্প চালু হচ্ছে। মোট ২ লক্ষেরও বেশি শিক্ষক থাকছেন এই ব্যবস্থায়। অন্যদিকে সোমবার পাড়ায় শিক্ষালয় প্রকল্পের ঘোষণা করার সময় শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু জানান, রাজ্য সরকার স্কুল খোলার পক্ষে।

তবে সব দিক বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে চায়। রাজ্য সরকার যাতে স্কুল খোলার কয়েক দিনের পরে যাতে আবার বন্ধ করে দিতে না হয়। তিনি আরও জানান, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গোটা বিষয়টির ওপর নজর রাখছেন। কবে স্কুল খোলা হবে সেই কথা মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দেবেন। স্কুল ধাপে ধাপে খুলতে চায় মুখ্যমন্ত্রী। সোমবার দুপুরে স্কুল খোলার দাবিতে বিকাশ ভবনের সামনে বিক্ষোভ দেখান এসএফআইয়ের কর্মীরা। আর তারপরে স্কুল খোলার বিষয়ে মুখ খোলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। এই প্রসঙ্গে এক শিক্ষাবিদ জানিয়েছেন, গত ২২ মাস ধরে রাজ্যের স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়গুলি বন্ধ রয়েছে। ফলে স্কুল খোলার দাবি উঠেছে। আর তা খুব স্বাভাবিক।