সিপিএমের পরবর্তী রাজ্য সম্পাদক কে হলেন?

28

মহানগর ডেস্ক: জেলার নেতাদের দমন করার জন্য আলিমুদ্দিন স্ট্রিট তলব করা হলো জেলা কমিটিকে। নেতাদের আকচাআকচি বন্ধ করতে কার্যত জোর করেই জেলা সম্পাদক করা হলো প্রবীণ মৃণাল চক্রবর্তীকে। সেইসঙ্গে ভোটাভুটিতে গঠিত হল ৬৬ জনের জেলা কমিটি। আজ থেকেই শুরু হচ্ছে সিপিএমের রাজ্য সম্মেলন। ৬৬ জনের কমিটিতে ঢোকার জন্য নাম পড়ে ৭৮ জনের। রবিবার সকাল থেকে বারাসতে ভোটগ্রহণ শুরু হলেও গণনা শেষ হতে মধ্যরাত গড়িয়ে যায়। ৪৭০ জন প্রতিনিধি ভোটাভুটিতে অংশ নেওয়ার কথা থাকলেও নাটক প্রাক্তন মন্ত্রী সুভাষ চক্রবর্তীর স্ত্রী রমলা চক্রবর্তীর মতো বেশ কয়েকজন প্রতিনিধি বিরক্ত হয়েই ভোটদানে বিরত থাকেন।

গণনা শেষে দেখা জেলার কয়েকজন তাবড় নেতা চলে যান পিছনের সারিতে। এর মধ্যে রয়েছেন প্রাক্তন মন্ত্রী গৌতম দেব, জেলা সম্পাদকের দৌড়ে থাকা তন্ময় ভট্টাচার্য, নেপালদেব ভট্টাচার্য, মৃণাল চক্রবর্তী।

তালিকার সামনের সারিতে রয়েছেন মানস মুখোপাধ্যায়। যিনি অসুস্থতার কারণে ভোটে লড়াই করতে পারেন না। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝেই মধ্যরাতেই বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্ররা সিদ্ধান্ত নেন জেলা সম্পাদক নির্বাচন করা হবে আলিমুদ্দিনে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মৃণাল চক্রবর্তীকেই মেনে নেওয়া হয়।