লকডাউন করেও রক্ষা হল না, করোনা আক্রান্ত কেজরিওয়ালের স্ত্রী

12
Kejriwal and his wife

মহানগর ডেস্ক:  দেশে করোনা মহামারীর আকার ধারণ করেছে।  প্রতিদিন দেশে রেকর্ড সংখ্যক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। দিনে দিনে মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে। করোনা সংক্রমণের দিক থেকে এগিয়ে রয়েছে দিল্লি। দিল্লিতে করোনা পজিটিভের হার প্রায় ৩০ শতাংশ। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর অন্দরমহলেও করোনা বসিয়েছে থাবা। করোনা আক্রান্ত হলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের স্ত্রী সুনীতা কেজরিওয়াল।

সরকারি ভাবে সুনীতা কেজরিওয়ালের করোনা আক্রান্তের খবর পাওয়া যায়নি। তবে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তরফে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার সুনীতা কেজরিওয়ালের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এর জেরে কেজরিওয়াল আইসোলেশনে চলে গিয়েছেন। গত বছর জুন মাসে কেজরিওয়ালের করোনা উপসর্গ দেখতে পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। সেই সময় তাঁর বাড়িতেই চিকিৎসা হয়।

দিল্লিতে বেলাগাম করোনা আক্রান্ত। দিল্লিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৩, ৬৮৬ জন আক্রান্ত হয়েছে। রাজধানীতে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। গত সোমবার রাত্রি ১০টা থেকে আগামী সোমবার সকাল পাঁচটা পর্যন্ত সম্পূর্ণ কারফিউ জারি করা হয়েছে। সম্পূর্ণ কারফিউয়ের বাইরে রাখা হয়েছে সংবাদপত্রকে ও জরুরি পরিষেবাকে। মঙ্গলবার সেই লকডাউনের প্রথমদিন। দিল্লির রাস্তা প্রায় ফাঁকাই ছিল।

দিল্লির পাশাপাশি মহারাষ্ট্রে সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করা হতে পারে। মহারাষ্ট্রের এক মন্ত্রী সেই ইঙ্গিত দিয়েছেন। মহারাষ্ট্রে সপ্তাহান্তে লকডাউন ও নাইট কারফিউ জারি করা হয়েছিল। কিন্তু তাতেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। মহারাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৮, ৯২৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৫১ জনের। কেরল, কর্ণাটক, তামিলনাড়ু ও অন্ধ্রপ্রদেশে করোনা সংক্রমণও বেড়েই চলেছে।