‘MNS স্টাইলে আপনার লাউডস্পিকার বন্ধ করে দেব’, সঞ্জয় রাউতের জন্য হুঁশিয়ারি বার্তা রাজ ঠাকরের

56

মহানগর ডেস্ক: মসজিদ থেকে লাউডস্পিকার সরানোর জন্য MNS প্রধানের সঙ্গে রাজ্য সরকারের দ্বন্দ্ব অব্যাহত। এর মাঝেই এদিন শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউতকে হুমকি দেওয়ার পোস্টার নজরে এলো। শনিবার মুম্বইতে সামনা অফিসের সম্মুখে নজরে এসেছে পোস্টারগুলি। ‘সামনা’ শিবসেনা কর্তৃক প্রকাশিত সংবাদপত্র। যার অফিসের সামনেই এই ঘটনা ঘটেছে। সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর এমনটাই।

পোস্টারগুলিতে লেখা রয়েছে, “আপনি কাকে ওআইসি বলে ডাকলেন? সঞ্জয় রাউত, আপনার লাউডস্পিকার বন্ধ করুন। পুরো মহারাষ্ট্র এর কারণে সমস্যায় পড়েছে, নইলে আমরা এমএনএস স্টাইলে আপনার লাউডস্পিকার বন্ধ করে দেব”। মূলত সঞ্জয় রাউতের সাম্প্রতিক সাক্ষাৎকারে ওআইসির প্রসঙ্গটি উঠে এসেছে। তিনি বিজেপির পক্ষ নিয়ে বলেছিলেন, “মহারাষ্ট্রে রাজ ঠাকরে ওআইসির ভূমিকা পালন করছে। এখানে এমএনএস একটি ‘ভোট কাতুয়া’। ঠিক যেভাবে ওয়াইসির এআইএমআইএম ছিল”।

মহারাষ্ট্রের মসজিদে লাউডস্পিকার সরিয়ে ফেলা নিয়ে নতুন করে রাজনৈতিক অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। এরমধ্যে আবার জ্বালানির দাম বেড়ে যাওয়ার প্রসঙ্গে মহা বিকাশ আঘাদি সরকারের সমস্ত দল রাজ ঠাকরের দাবির বিরোধিতা করতে একজোট হয়ে দাঁড়িয়েছেন। সম্প্রতি একটি সমাবেশে মসজিদগুলি থেকে লাউডস্পিকার সরানোর দাবি জানান MNS প্রধান এবং বলেন যে যদি লাউডস্পিকার সরানো না হয় তবে তাঁর দল মসজিদগুলির বাইরে জোড়ে ‘হনুমান চালিসা’ বাজাবে।

এর পরেই নয়া বিতর্ক শুরু হয়। এমনকি এরপর রাজ ঠাকরের দল থেকে পদত্যাগ করেন বহু মুসলিম নেতা। এই নিয়ে মহারাষ্ট্রের উপ-মুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ার বলেন, রাজ ঠাকরেকে গুরুত্ব দেওয়া উচিত নয়। অন্যদিকে আদিত্য ঠাকরে বলেন, মসজিদ থেকে লাউডস্পিকার না নামিয়ে তা ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতি নিয়ে কথা বলতে ব্যবহার করা উচিত। এরমধ্যে আবার সঞ্জয় রাউতকে হুমকির পোস্টার সামনে এসেছে।