Yashabant Speaks: বুলডোজার রাজ না সংবিধানের শাসন, কোনটা চান ভারতের মানুষ,প্রশ্ন তুলে দিলেন যশবন্ত

78
বুলডোজার রাজ না সংবিধানের শাসন, কোনটা চান দেশের মানুষ, প্রশ্ন তুললেন যশবন্ত সিনহা

মহানগর ডেস্ক: বুলডোজার রাজ,(Bulldozer Regime) না দেশে কায়েম হোক সাংবিধানিক শাসন, কোনটা চান ভারতের মানুষ ? রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগে এই প্রশ্ন তুলে দিলেন বিরোধী জোট প্রার্থী যশবন্ত সিনহা (Yashabant Siha)। প্রার্থী মনোনীত হওয়ার পর তেরাত্তিরও কাটেনি, দেশে গণতন্ত্রকে পিষে মারার জন্য তোপ দাগলেন তাঁর একসময়ের দল বিজেপির দুই হেভিওয়েট নেতা নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহকে (Modi and Shah)।

জানালেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নেতৃত্বে এ দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস হতে চলেছে। তাঁরা যে পথ নিয়েছেন, সেই পথ শুধু অগণতান্ত্রিকই নয়, ভবিষ্যতের জন্য বিপজ্জনক। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তিনি লড়ছেন এনডিএ প্রার্থী ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন রাজ্যপাল এবং আদিবাসী নেত্রী দ্রৌপদী মুর্মুর বিরুদ্ধে। যে লড়াই নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে কাউন্ট ডাউন। নির্বাচনের আগেই স্বস্তিজনক জায়গায় রয়েছেন এনডিএ প্রার্থী। কারণ ইতিমধ্যেই নবীন পট্টনায়কের বিজেডি তাঁর দিকে সমর্থনের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।

হয় বিজেডি নাহয় জগন্মোহন রেড্ডির দলের সমর্থন পেলে মুর্মুর জয় অনেকটাই সহজ বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে প্রয়োজনীয় অঙ্ক দ্রৌপদী মুর্মুর দিকে ঝুঁকলেও তাকে গুরুত্ব দিতে রাজি নন যশবন্ত সিনহা। তার রেশ টেনে যশবন্ত জানালেন, সংখ্যাটা গুরুত্বপূর্ণ নয়, গুরুত্বপূর্ণ হল মালিকসুলভ সরকারের বিরুদ্ধে এককাট্টা বিরোধীদের লড়াই। জানালেন দেশের সমস্ত অ-বিজেপি দলগুলি এবার গেরুয়া শিবিরের অপশাসনের বিরুদ্ধে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবে। বলা যায়, তাঁর এই লড়াই থেকেই নতুন করে শুরু হতে চলেছে মোদি-শাহের একনায়কসুলভ শাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার প্রতিরোধ।