‘কিলি পলকে দেখে কিছু শেখা উচিত’, ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে নয়া প্রজন্মের উদ্দেশ্যে মোদীর বার্তা

74

মহানগর ডেস্ক: গোটা দেশজুড়ে তাদের জনপ্রিয়তা আকাশছোঁয়া। সকলের কাছে তাঁরা ইন্টারনেট সেনসেশন কিলি পল ও নিমা পল নামে পরিচিত। এমনকি তাঁদের জনপ্রিয়তা পৌঁছে গিয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছ পর্যন্ত। আজ ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর গলায় শোনা গেল এই দুই ইন্টারনেট সেনসেশন ব্যক্তিত্বের নাম।

মূলত এই দুই ব্যক্তিত্ব হল, আদতে ভাই-বোন। যাদের প্রশংসা করতে দেখা গেল এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। তাঁর বক্তব্য, তাঁদের থেকে দেশের নতুন প্রজন্মের কিছু শেখা উচিত। আজ ‘মন কি বাতে’ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, “দুই ভাইবোন কিলি পল ও নিমা পলের মতো আমি প্রত্যেকের কাছে আর্জি জানাবো, বিশেষ করে দেশের নতুন প্রজন্মের কাছে যে তাঁরা যেন আলাদা আলাদা রাজ্যের আলাদা আলাদা ভাষার গানে ঠোঁট মিলিয়ে নতুন ভিডিও তৈরি করে। আমরা ‘এক ভারত শ্রেষ্ঠ ভারত’ হয়ে দেশের বিভিন্ন ভাষাকে যাতে আরও জনপ্রিয় করে তুলতে পারি সেটার দিকে লক্ষ রেখে এগিয়ে যাক দেশের এই নয়া প্রজন্ম”।

কিছুদিন আগেই ইন্টারনেট সেনসেশন কিলি পলকে তানজানিয়ার ভারতীয় হাইকমিশন সম্মানিত করে। এমনকি তা পোস্ট করা হয় ভারতীয় হাইকমিশনে টুইটার অ্যাকাউন্টে। এই মুহূর্তে ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট কিমি পলের ফলোয়ার রয়েছে ২ মিলিয়নেরও বেশি। যেই তালিকায় শুধু সাধারণ মানুষ নয়, টলিউড থেকে বলিউড অনেকেই রয়েছেন। আবার বিনায়া প্রধান টুইটারে কিলি পলকে উপহার দেওয়ার ছবি শেয়ার করে লেখেন, “তানজানিয়ার ভারতীয় হাইকমিশনে একজন বিশেষ অতিথি এসেছেন। তিনি হলেন কিলি পল।সমস্ত গানের সঙ্গে লিপসিং করে লক্ষ লক্ষ ভারতীয়দের মন জয় করেছেন তিনি”।

অন্যদিকে আজ ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর গলায় শোনা গেল তাঁদের কথা। মূলত তাঁদেরকে দেখে, নয়া প্রজন্মর মধ্যে সেই উত্তেজনা জাগাতে চেয়েছেন তিনি। এদিন ইন্টারনেট সেনসেশন কিলি পল ও তাঁর বোন নিমা পলের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন মোদীজি।